মেইন ম্যেনু

‘আমার সেক্স করা প্রমাণ দিতে হয় না, কিন্তু…’

বাংলাদেশ থেকে নির্বাসিত ও বহুল বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন এবার তার লেখা সবাইকে বিশ্বাস করানো নিয়ে আজ শুক্রবার বেলা সাড়ে ১২টার কিছু পরে তিনি তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। যেখানে তিনি উদাহরণ হিসেবে তার সেক্স করার বিষয়টি উল্লেখ করে ফ্রান্সে তার নিরাপত্তায় ২০০০ পুলিশ ছিল সেটা বিশ্বাস করাতে চেয়েছেন। এবং এর সাথে একটি ইংরেজি পত্রিকার লিংকও জুড়ে দিয়েছেন।

তসলিমা নাসরিন তার স্ট্যাটাসে লিখেছেন, আমি যখন লিখি আমি এক লোকের সঙ্গে সেক্স করেছি, সবাই তা বিশ্বাস করে। কোনও প্রমাণ দিতে হয় না। আমাদের সেক্স করার ছবি পোস্ট করতে হয় না। সবাই আমার বরাত দিয়ে বলে, তসলিমা নিজেই বলেছে ও ওই লোকের সঙ্গে সেক্স করেছে। সবাই তখন একবাক্যে স্বীকার করে, আমি সত্যবাদী, আমি সত্য বই মিথ্যে বলি না।

তিনি লিখেছেন, কিন্তু যখন আমি লিখি ফ্রান্সে আমার নিরাপত্তায় ২০০০ পুলিশ ছিল, তখন বলা হয় আমি সায়েন্স ফিকশান লিখেছি। প্রমাণ ট্রমান কিছু আমার হাতের কাছে নেই। অত বছর আগের কথা, ওসবের পেপার ক্লিপিংস কোথায় কোন দেশে পড়ে আছে, কে তার খবর রাখে! এক দেশ থেকে আরেক দেশ, এক বাড়ি থেকে আরেক বাড়ি! কম করতে হয়েছে? কত কিছু হারিয়ে গেছে।

tas1

তসলিমা তার স্ট্যাটাসে আরো লিখেছেন, সকালে একজন একটা নিউজ লিংক পাঠালো, ওতে লেখা আমাকে ফ্রান্সে রাষ্ট্রপতির মতো নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে, ১২০০ পুলিশ ছিল আমার নিরাপত্তার জন্য। লিংকটা যে পাঠিয়েছে, তাকে বললাম, ভায়া, ৮০০ পুলিশ তো কম পড়লো! ৮০০ পুলিশ না হলে তো ‘সায়েন্স ফিকশান’টা ভালো দাঁড়াবে না। ও বললো ১২০০ পুলিশেই সায়েন্স ফিকশন হিট হয়। কথা দিলো ৮০০ পুলিশ যোগাড় করতে ও আজই বেরিয়ে পড়বে, তন্ন তন্ন করে খুঁজবে, পাবে না হতেই পারে না। আমি বললাম, ভালো করে খুঁজলে, বলা যায় না, দু’একটা কামানও পেতে পারো। ও কামানের ব্যাপারে শিউর না অবশ্য।