মেইন ম্যেনু

‘আমি গর্বিত ও সম্মানিত’

দক্ষিণ আফ্রিকার ওয়ানডে দলের অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স এ বছর বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছেন। টানা দ্বিতীয়বারের মতো এই পুরস্কার জিতলেন তিনি।

ভিলিয়ার্স এর আগে বর্ষসেরা পুরষ্কার জিতেছিলেন ২০১০ সালেও। তিনবার এই পুরস্কার জিততে পারেননি আর কেউই। এই পুরস্কার জিতে উচ্ছ্বসিত এবি ডি ভিলিয়ার্স জানান তিনি গর্বিত ও সম্মানিত। বললেন, ‘২০১৫ সালের আইসিসি ওডিআই ক্রিকেটার নির্বাচিত হওয়ায় আমি গর্বিত ও সম্মানিত।’

বর্ষসেরার পুরস্কার পাওয়ার পেছনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৪৪ বলে ১৪৯ রানের ইনিংসটিকে গুরুত্ব দিয়েছেন ডি ভিলিয়ার্স। ওই ইনিংসেই মাত্র ৩১ বলে সেঞ্চুরি করে দ্রুততম সেঞ্চুরির বিশ্ব রেকর্ড গড়েন তিনি। আর জোহানেসবার্গের ওন্ডারার্স স্টেডিয়ামে হাঁকানো ঝড়ো ওই ইনিংসটিকে চলতি বছরে তার সবচেয়ে স্মরণীয় মুহূর্ত মনে করছেন ডি ভিলিয়ার্স।

বললেন, ‘এ বছরে অনেক ভালো স্মৃতি জড়িয়ে আছে। ঠিক তেমনি হতাশাও আছে। যদি পেছনে ফিরে তাকাই তাহলে আমি বলব, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওন্ডারার্সে হাঁকানো সেঞ্চুরিটি সবচেয়ে স্মরণীয় হয়ে আছে। যখন দল হেরে যায় তখন সেঞ্চুরি গণনা করা হয় না। ভবিষ্যতে প্রোটিয়াদের জয়ে আরো অবদান রাখার চেষ্টা করব।’

২০১৪ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে চলতি বছরের ১৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পারফরম্যান্সের বিবেচনায় এবি ডি ভিলিয়ার্স বর্ষসেরা ওয়ানডের মুকুট জিতেছেন। এ সময়ে ১২৮.৪ স্ট্রাইক রেটে ৭৯ এর চেয়েও বেশি গড়ে ২০ ইনিংসে ১ হাজার ২৬৫ রান করেছেন প্রোটিয়া অধিনায়ক। কদিন আগে ২০১৫ সালে বর্ষসেরা ওয়ানডে দলের অধিনায়কও নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।