মেইন ম্যেনু

‘আমি প্রেসিডেন্ট হলে ইরান…’

‘আমি প্রেসিডেন্ট হলে ইরান কখনোই পরমাণু অস্ত্রের মালিক হতে পারবে না।’ যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক্তন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টি সম্ভাব্য পদপ্রার্থী হিলারি রডহ্যাম ক্লিনটন এ কথা বলেছেন।

ইরানের সঙ্গে বিশ্বের ছয় পরাশক্তির পরমাণু চুক্তি স্বাক্ষর হওয়ার পর প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে এ কথা বলেছেন হিলারি। ২০১৬ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থিতা ঘোষণাকারী হিলারি ইসরায়েলের নিরাপত্তাকে গুরুত্ব দিচ্ছেন।

মঙ্গলবার অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, রাশিয়া, চীন ও জার্মানির সঙ্গে পরমাণু চুক্তি হয় ইরানের। ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ এবং বিশ্বশক্তির মধ্যস্থকারী মুখপাত্র ক্যাথেরিন মোঘেরিনি যৌথ বিবৃতিতে চুক্তির ঘোষণা দেন। এই ঘোষণার পর বিশ্বজুড়ে উচ্ছ্বাস ও ভর্ৎসনা উভয়ই প্রকাশ পেয়েছে।

ইসরায়েলে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিয়েছে, এই চুক্তির ঐতিহাসিক ‘মহা ভুল’। তাদের দাবি, চুক্তির ফলে ইরান পারমাণবিক অস্ত্র তৈরির লাইসেন্স পেয়ে গেল। এতে ইসরায়েলের নিরাপত্তা মারাত্মক হুমকির মধ্যে পড়ল।

খানিকটা একই সুরে কথা বলেছেন হিলারি ক্লিনটন। তিনিও মনে করেন, চুক্তির সুবিধা কাজে লাগিয়ে ইরান আজ হোক কাল হোক, পরমাণু অস্ত্র তৈরির পথে এগিয়ে যাবে। কিন্তু তিনি প্রেসিডেন্ট হলে ইরান কখনোই সে সুযোগ পাবে না। পারমাণবিক অস্ত্র বানানো থেকে ইরানকে দূরে রাখতে সব ধরনের হাতিয়ারই ব্যবহার করবেন তিনি।

তথ্যসূত্র : এনডিটিভি অনলাইন।