মেইন ম্যেনু

আমি বৈধ রাষ্ট্রপতি : এরশাদ

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ নিজেকে বৈধ রাষ্ট্রপতি হিসেবে দাবি করে বলেছেন, গণভবন থেকে তার ছবি সরানো সম্ভব নয় এবং রাষ্ট্রপতি হিসেবে তিনি সব সুবিধা পাওয়ার দাবিদার। তবে রাষ্ট্রপতি হিসেবে তিনি কোনও বেতন ভাতা নেন না। মঙ্গলবার দুপুরে রংপুরের দর্শনা এলাকায় নিজ বাসভবন পল্লী নিবাসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

জাতীয় সংসদে অবৈধভাবে ক্ষমতায় আসা রাষ্ট্রপতিরা বেতন ভাতাসহ কোনও সুযোগ সুবিধা পাবেন না মর্মে বিল পাস হওয়া প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি এসব কথা বলেন। এরশাদ বলেন সুপ্রিম কোর্ট আর হাইকোর্টের আদেশ অনুযায়ী ১৯৮৬ সাল থেকে ৯০ সাল পর্যন্ত আমি বৈধ রাষ্ট্রপতি। গণভবনে আমার ছবি আছে যা চিরকাল থাকবে।

এরশাদ বলেন, তাছাড়া আমার প্রসঙ্গে ওই বিলে কিছু বলা হয়নি। তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতি হিসেবে আমি কোনও বেতন ভাতা নেই না। সেনাবাহিনীর সাবেক প্রধান হিসেবে পেনশন পাই, সেই টাকা নিয়মিত উত্তোলন করি।

এ সময় জাতীয় পার্টিকে আরও শক্তিশালী করার জন্য গণসংযোগের অংশ হিসেবে দ্রুত রংপুরে মহাসমাবেশ করা হবে বলে জানান তিনি।

এ সময় বিরোধীদলীয় নেতা হয়েও রওশন এরশাদ চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সাক্ষাৎ না পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি এবং প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে মেরুদণ্ডহীন আখ্যায়িত করে পুরো নির্বাচন কমিশনকে ঢেলে সাজাতে ও যোগ্য নিরপেক্ষ লোকদের নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

এর আগে ঢাকা থেকে বিমান যোগে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে অবতরণ করে তার পল্লী নিবাস বাসভবনে এসে পৌঁছলে দলের নেতা কর্মীরা তাকে স্বাগত জানান। এ সময় মহানগর জাপার আহবায়ক মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা সদস্য সচিব ইয়াসিরসহ দলীয় অন্যান্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।