মেইন ম্যেনু

‘আমি সম্পূর্ণ দিলশানকে দোষ দিতে পারছি না’

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ইমরুল কায়েসের রান আউটের ঘটনায় তিলকরত্নে দিলশানকে দোষ দিচ্ছেন না তামিম ইকবাল।

চিটাগং ভাইকিংস অধিনায়কের ধারণা, মুহূর্তের উত্তেজনায় কাজটি করে বসেছেন শ্রীলঙ্কার এই ক্রিকেটার। বললেন,’আমি সম্পূর্ণ দিলশানকে দোষ দিতে পারছি না। এটা ক্রিকেটে একটা মুহূর্তে হয়। কোনো ক্রিকেটার ইচ্ছে করে কখনো এটা করতে চায় না। দিলশান ইচ্ছে করে পড়ে গেছে, কিংবা ইমরুলকে টান দিয়ে ফেলে দিয়েছে, এরকম কিছু হয়েছে বলে আমি মনে করি না।’

ইমরুল পড়ে যাওয়ার পর ক্রিজে থাকা আহমেদ শেহজাদও ব্যাটিং প্রান্তে চলে আসেন। চিটাগং ভাইকিংসের ফিল্ডাররা বোলিং প্রান্তের স্ট্যাম্পের বেল ফেলে দিয়ে রান আউটের আবেদন করেন। এ সময় ইমরুল কায়েসও আম্পায়ারের কাছে পড়ে যাওয়ার বিষয়টি জানান। মাঠের আম্পায়াররা এজন্য তৃতীয় আম্পায়ারের শরণাপন্ন হন।

যদিও সংবাদ সম্মেলনে তামিম জানালেন, সে সময় তিনি রান আউটের জন্য কোনো আবেদন করেননি। তবে দেখা গেছে, চিটাগং ভাইকিংসের ক্রিকেটাররা ঠিকই রান আউটের আবেদন করেছেন।

এ বিষয়ে তামিমের বক্তব্য, ‘আমি যে পজিশনে দাঁড়িয়ে ছিলাম ওখান থেকে বোঝা খুব কঠিন ছিল যে কী হয়েছিল? তবে আমি ঘটনাটা দেখে দ্বিধায় পড়ে গিয়েছিলাম। কারণ, ওদের একটা ব্যাটসম্যান ও আমার একজন ফিল্ডার পড়ে গিয়েছিল। আম্পায়ারকে গিয়ে বলেছি, যে আমি আপিল করছি না। বলছি না যে আউট দিতে হবে বা কিছু। আপনারা সিদ্ধান্ত নিন। আমি তো ভিডিও দেখতে পাচ্ছি না।

ভিডিওটি দেখলে তামিম কায়েসকে ফিরিয়ে আনতেন বলে জানালেন তিনি। বললেন, ‘ইমরুলকে গিয়েও একই কথা বলেছি যে, আপিল করছি না। আম্পায়ারই সিদ্ধান্ত নেবে। তবে বলতে পারি, ভিডিওটা যদি দেখতাম, তাহলে আম্পায়ার ইমরুলকে আউট দিলেও আমি ওকে ফিরিয়ে আনতাম।’