মেইন ম্যেনু

‘আম্মা’র বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আপিল

ভারতের তামিল নাড়ু রাজ্যে ‘আম্মা’ খ্যাত রাজনীতিক, এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী জয়রাম জয়ললিতার খালাসের বিরুদ্ধে আপিল করেছে কর্নাটক সরকার।

অসুদোপায়ে অর্থ অর্জনের মামলায় নিম্ন আদালত জয়ললিতাকে সাজা দিলেও হাইকোর্ট তাকে বেকসুর খালাস দেন। হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আপিল করেছে কর্নাটক সরকার।

আপিলে কর্নাটক সরকার জয়ললিতার খালাসকে অবৈধ বলে উল্লেখ করেছেন। একই সঙ্গে এতে হাইকোর্টের রায়কে ‘প্রহসন’ বলা হয়েছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের এক খবরে মঙ্গলবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

নামিল নাড়ুর ক্ষমতাসীন দল অল ইন্ডিয়া আন্না দ্রাবিড়া মুনেত্রা কাজাগামের (এআইএডিএমকে) প্রধান জয়ললিতার বিরুদ্ধে ১৯ বছর আগে ৬৬ দশমিক ৬৫ কোটি রুপি তছরুপের অভিযোগ আনা হয়। নরেন্দ্র মোদি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতায় আসার পর মামলাটি পুনরুজ্জীবিত করে কর্নাটক সরকার।

উল্লেখ্য, জয়ললিতা মুখ্যমন্ত্রী থাকা অবস্থায় কর্নাটক সরকার অর্থাৎ সরকারি আইনজীবীরা স্বাধীনভাবে মামলাটি নিয়ে তার বিরুদ্ধে আদালতের লড়াইয়ে অবতীর্ণ হন। নিম্ন আদালতের রায়ে তার সশ্রম কারাদণ্ড হয়। এতে মুখ্যমন্ত্রীর পদ হারান জয়ললিতা।

১২ মে কর্নাটক হাইকোর্ট তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ খারিজ করে দিয়ে তাকে বেকসুর খালাস দেন। ২৩ মে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে আবার শপথ নেন তিনি।

জয়ললিতার সঙ্গে অভিযুক্ত ও সাজাপ্রাপ্ত আরো তিনজনের খালাসের বিরুদ্ধেও আপিল করা হয়েছে।