মেইন ম্যেনু

আম খাবে নিলু, আম পাচ্ছে নিলু

নির্বাচনী প্রতীক ‘আম’ নিয়ে দু’পক্ষের বিরোধের মধ্যে ন্যাশনাল পিপলস পার্টি-এনপিপি’র ফরিদুজ্জামান ফরহাদ নেতৃত্বাধীন অংশেরশুনানি সোমবার করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। নির্বাচন কমিশন সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

সূত্র জানায়, আম নিয়ে দু’পক্ষের শুনানীর পর শওকত হোসেন নিলু নেতৃত্বাধীন অংশকে আম প্রতীক দিতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন।এর আগে গত ১৮ এপ্রিল দুই পক্ষের শুনানীর কথা থাকলেও শেখ শওকত হোসেন নিলু নেতৃত্বাধীন অংশ সেদিন ইসির শুনানীতে অংশ নেন। সেদিন এ পক্ষের চেয়ারম্যান-মহাসচিবসহ পাঁচ জন ইসির সামনে তাদের বক্তব্য তুলে ধরেন।

শুনানিতে আম প্রতীক নিজেদের দাবি করে দলটির নিবন্ধন ও প্রতীক তাদের পক্ষে দেওয়ার দাবি জানান নিলু।

সেদিন বিকেলে ফরিদুজ্জামান ফরহাদ নেতৃত্বাধীন এনপিপি’র আরেক অংশের শুনানীর সময় নির্ধারিত ছিল। কিন্তু এ অংশের মহাসচিব মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা অসুস্থ থাকায় শুনানীর জন্য এক সপ্তাহ পিছিয়ে দেওয়ার আবেদন করে ইসিতে আবেদন করে। পরে তাদের আবেদন আমলে নিয়ে ইসি আজ (২৫ এপ্রিল) ফরহাদ নেতৃত্বাধীন এনপিপি’র এ অংশের শুনানীর জন্য পুন:তারিখ নির্ধারণ করা।

এসময় প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদসহ চার নির্বাচন কমিশনার ও ইসি সচিব উপস্থিত ছিলেন।

ইসির প্রশাসনিক কর্মকর্তা রোমান মাহবুব চৌধুরী বলেন, কমিশন দুই পক্ষের বক্তব্য শুনেছে এখন দুই পক্ষের বক্তব্য ও দলিলাদি দেখে আম প্রতীক কোন পক্ষ পাবে কমিশন এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে তাদেরকে পরে জানিয়ে দেবে।

সম্প্রতি জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের প্রতীক মশাল নিয়েও দুই পক্ষের শুনানি করে ইসি। শুনানি শেষে হাসানুল হক ইনু নেতৃত্বাধীন অংশকেই জাসদের মূল ধারা হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে মশাল প্রতীক তাদের বলে সিদ্ধান্ত দিয়েছে ইসি।