মেইন ম্যেনু

আর্জেন্টিনার ইতিহাস বদলাতে চান মেসি

টানা তিন বছর তিনটি ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে আর্জেন্টিনা। দুইটিতে ইতোমধ্যে ব্যর্থ হয়ে ব্যর্থ দলে রূপান্তরিত হয়েছে আর্জেন্টিনা। তারকার হাট বসিয়েও ফাইনালে জয়ের মুখ দেখতে পারেনি মেসি-হিগুয়েনরা। আবারো কোপার ফাইনালে আর্জেন্টিনা। এবারই হয়ত আর্জেন্টিনার সামনে শেষ সুযোগ নিজেদের ২৩ বছরের শিরোপাখরা ঘোচানোর। তাইতো মেসিও এবার আর্জেন্টিনার ইতিহাস বদলানোর মিশনে নেমেছেন।

বিশ্বকাপ এবং ২০১৫ কোপা আমেরিকার সেরা খেলোয়াড় হয়েছিলেন। কিন্তু দলকে শিরোপা জেতাতে পারেননি মেসি। এবার বদ্ধপরিকর এই ক্ষুদে জাদুকর। ‘এবার আর দেওয়ার সময় নেই; কারণ আমাদের অর্জনের খুব কাছেই চলে এসেছি আমরা। গেল বছর থেকে আমরা একটি দল হিসেবে অনেক শক্তিশালী হয়ে গড়ে উঠেছি। আমরা এখানে ভালোভাবেই এসেছি। আমরা ফাইনালে খেলার জন্য মুখিয়ে রয়েছি।’

২৩ বছরে আর্জেন্টিনার বহু নামকরা ফুটবলার এসেছে। কিন্তু কেউই অধরা শিরোপার খোঁজ দিতে পারেনি। মেসি কি পারবেন সেটি খুঁজে দিতে? ‘আমি আর্জেন্টিনার ইতিহাস বদলাতে চাই এবং দলের হয়ে চ্যাম্পিয়ন হতে চাই। পুরো টুর্নামেন্ট জুড়েই আর্জেন্টিনা নিজেদের শক্ত দল হিসেবে প্রমাণ করে এসেছে।’

কী হবে যদি আর্জেন্টিনা এবারও ফাইনালে হার নিয়ে বিদায় নেয়? অন্য কারোর কথা না জানলেও মেসি অবশ্য জানেন তিনি খুব হতাশ হয়ে পড়বেন। ‘এবারের ফাইনালেও হারার মানে এই নয় যে আমরা ব্যর্থ হয়েছি কিন্তু টানা তিনটি ফাইনালে হারাটা খুব হতাশাজনক হবে আমাদের জন্য। আমাদের উপর কোন চাপ নেই। আশা করি আমরা জিততে পারবো এবং জয়ী মুহূর্তটা উপভোগ করতে পারবো।’