মেইন ম্যেনু

আশুলিয়ায় গৃহবধুকে জবাই করে হত্যা: স্বামী পালাতক

টিপু সুলতান(রবিন)-সাভার প্রতিনিধি: আশুলিয়ায় এক গৃহবধূকে জবাই করে হত্যা করেছে পাষন্ড স্বামী। ঘটনার পর থেকে পালাতক রয়েছে স্বামী। মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহত ওই গৃহবধূর নাম রিনা আক্তার (২৬)। সে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাও এর বাড়টি এলাকার ফজুল মিয়ার মেয়ে। এবং পালিয়ে যাওয়া ওই পাষন্ড স্বামীর নাম মিজানুর। সে সাভার এএনজেল টেক্সটাইল লিমিটেডের এমডির গাড়ির চালক বলে জানা গেছে। তার গ্রামের বাড়ি বি বাড়িয়া।

রোববার সকাল ১১ টায় আশুলিয়ার খেজুরবাগান এলাকার সোহেল রানার বাগান বাড়ির একটি কক্ষ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, সকালে ওই গৃহবধূর স্বামী মিজুনুর বাসা থেকে বের হয়ে যাওয়ার সময় বাগানবাড়ির নিরাপত্তা কর্মী আইয়ূব আলীর কাছে সন্দেহমুলক কথাবার্তা বলে বের হয়ে যান। এরপর ওই নিরাপত্তা কর্মীর সন্দেহ হলে বাসার ভিতরে গিয়ে দেখতে পায় মেঝেতে রক্তাক্ত অবস্থায় ওই গৃহবধূর মরদেহ পড়ে আছে।

পরে ওই নিরাপত্তা কর্মী বাগানবাড়ির মালিক সোহেল রানাকে অবগত করলে তিনি বিষয়টি আশুলিয়া থানা পুলিশকে জানান। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এবং ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) একরামুল হক জানান, প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জের ধরে ওই গৃহবধূকে জবাই করে খুন করার পর পালিয়ে গেছে স্বামী মিজানুর। পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, ওই দম্পতির নয় ও পাঁচ বছরের দুটি সন্তান রয়েছে। গ্রামের বাড়ি থেকে ওই শিশু দুটির নানী আসার পর তার কাছে শিশু দুটিকে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।



(পরের সংবাদ) »