মেইন ম্যেনু

আশুলিয়ায় দু’দিনেও উদ্ধার হয়নি অজ্ঞাত ব্যক্তির মৃতদেহ

টিপু সুলতান(রবিন), সাভার(ঢাকা): সাভারের আশুলিয়ার টঙ্গাবাড়ি এলাকার তুরাগ নদীতে একটি ইট ভাটার পাশে দু’দিন ধরে অজ্ঞাত এক যুবকের অর্ধগলিত লাশ পড়ে থাকলেও উদ্ধার করছে না পুলিশ। দু’দিন পেরিয়ে গেলেও লাশ উদ্ধার না করায় পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় টঙ্গাবাড়ি তুরাগ নদীর পাশে ষ্টাইল ব্রিকস ২ এর পাশে অজ্ঞাত এক যুবকের (৩০) অর্ধগলিত লাশ দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে গতকাল(শুক্রবার) দুপুরে আশুলিয়া থানা পুলিশকে খবর দিলে থানার উপপরিদর্শক সৌয়দ মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান সঠিক ঘটনা স্থলে না গিয়ে অন্য স্থানে প্রায় ১ ঘন্টা ধরে লাশ খুজে না পেয়ে চলে যায়। পরে আজ(শনিবার) দুপুরে স্থানীয়রা লাশটি আবারও দেখে পুলিশে খবর দেয়। দু’দিন পেরিয়ে গেলেও ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করতে না পারায় পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে স্থানীয়রা।

স্থানীয়দের ধারনা গত কয়েক দিন আগে ওই যুবককে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে লাশ গুম করার জন্য ওই স্থানে ফেলে যায় দুর্বৃওরা। যুবকের পড়নে রয়েছে চেক শার্ট ও প্যান্ট।

উল্যেখ্য,গতকাল(শুক্রবার)দুপুরে,অজ্ঞাত একজনের লাশ পড়ে আছে বলে আশুলিয়া থানায় ফোন দিলে দিলে,টহল ডিওটিতে থাকা আশুলিয়া থানার উপপরিদর্শক সৌয়দ মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান টঙ্গাবাড়ি একটি ব্রীজের আশে,পাশে তল্লাশী চালিয়ে লাশ না পেয়ে,পাশ্ববর্তী আরেকটি ছোট ব্রীজের নিচে প্রায় ঘন্টা ব্যপী তল্লাশী চালিয়ে কোন মৃতদেহের খোজ না পেলে থানায় ফিরে যায়।

এবিষয়ে আশুলিয়া থানার (ওসি) তদন্ত আকবর আলী জানায় এখন পর্যন্ত আমরা কোন লাশের খবর পায়নি। খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে।

অন্যদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক ব্যক্তি জানায়,গতকাল বিভিন্ন গোয়েন্দা ও পুলিশকে জানানো হলেও মৃতদেহটি সরানোর ব্যপারে পুলিশের কোন ভূমিকা দেখা যায়নি বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।