মেইন ম্যেনু

আসছে ভবিষ্যতের সাকিব আল হাসান

যুব বিশ্বকাপ শুরুর আগে তিনি বলেছিলেন, টুর্নামেন্টে সেরা অল রাউন্ডার হতে চান। তার চাওয়াটা বাস্তব রূপ পেয়েছে।

তবে একটা কথা বলে দেওয়া যায় যে, বাংলাদেশের মেহেদী হাসান মিরাজ টুর্নামেন্টের সেরা অল রাউন্ডার। টুর্নামেন্টে সেরার পুরস্কারটা কি তার হাতে উঠবে? তবে এই দৌঁড়ে সবচেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক। অল রাউন্ড পারফরম্যান্সে তার ধারের কাছে নেই অন্য কোন ক্রিকেটার।

মিরাজকে বলা হয় ভবিষ্যত সাকিব আল হাসান। যুব বিশ্বকাপে এই বাক্যটাকেও যেন ছাড়িয়ে গেলেন মিরাজ। তার পারফরম্যান্স বলছে, অল রাউন্ড নৈপূণ্যে তিনি সাকিবকেও হয়ত ছাড়িয়ে গেছেন।

পুরো টুর্নামেন্টে ব্যাট হাতে ছিলেন যেমন ধারাবহিক, তেমনি বল হাতেও উইকেট নিয়েছেন একের পর এক। ৬ ম্যাচে তিনি ব্যাট করেন ৫ ইনিংসে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ২৩ রান করার পর টানা ৪ ম্যাচেই হাঁকিয়েছেন হাফ সেঞ্চুরি। এবং তার হাফ সেঞ্চুরির বেশিরভাগই এসেছে কঠিন সময়ে। দলের বিপর্যয়ের সময়ে।

বারবার চাপের মধ্যেই তাকে ধরতে হয়েছে হাল। ৫ ইনিংসে ৪ হাফসেঞ্চুরিসহ টুর্নামেন্টে মিরাজের রান ২৪২, গড় প্রায় ৬১। এ পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি রান সংগ্রহকারী ব্যাটসম্যানের তালিকার ১২ নম্বরে তিনি।

তার স্পিন বোলিংও দলের জন্য বড় টার্নিং পয়েন্ট। ৬ ম্যাচে ১৭.৬৬ গড়ে ১২ উইকেট নিয়ে সবচেয়ে বেশি উইকেট পাওয়া বোলারের তালিকার ৭ নম্বরে মিরাজ।

সব মিলিয়ে দারুণ একটি টুর্নামেন্টে শেষ করেন মিরাজ। সঙ্গে জানিয়ে দেন, জাতীয় দলে তিনি নতুন সাকিব। সিনিয়র দলের ক্যাপ পরা যে তার সময়ের ব্যাপার।