মেইন ম্যেনু

আসল ঐশ্বরিয়াকে পাশেই পেলেন সালমান

বলিউড তারকা সালমান খান যেখানে, সেখানে বিতর্ক থাকবে না তা কী হয়?

সম্প্রতি ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরোতে অনুষ্ঠিতব্য গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকের ভারতের ‘গুডউইল অ্যাম্বাসেডর’ নির্বাচিত হয়েছেন সালমান খান। এরপর থেকেই শুরু হয়েছে বিতর্ক।

সালমান যেমন বলিউডের সবচেয়ে বড় তারকা তেমনি ব্যক্তিগত নানা কারণে বিতর্কিতও। তাই সালমানকে ‘গুডউইল অ্যাম্বাসেডর’ নির্বাচিত করার ভারতের অলিম্পিক কমিটির এমন সিদ্ধান্তের পর থেকেই চলছে সমালোচনা। অনেকেই সিদ্ধান্তটিকে স্বাগত জানিয়েছেন। আবার অনেকেই এর প্রতিবাদ করেছেন। এদের মধ্যে রয়েছেন মিলখা সিং এবং ভারতের ব্রোঞ্জজয়ী রেসলার যোগেশ্বর দত্ত।

সালমানকে গুডউইল অ্যাম্বাসেডর থেকে বাদ দেওয়ার জন্য এরই মধ্যে চালু করা হয়েছে চেঞ্জ ডটঅর্গ (change.org) নামের একটি অনলাইন পিটিশনের ব্যবস্থা। আর এখানে সালমান খানের বিষয়ে ভারতের অলিম্পিক কমিটির এ সিদ্ধান্তের নিন্দা জানিয়ে পিটিশন করেছিলেন ঐশ্বরিয়া রাই নামের একজন। তবে তিনি অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন কিনা তা নিয়ে শুরু হয়েছিল জল্পনা-কল্পনা।

অবশেষে সেই জল্পনা-কল্পনার অবসান হয়েছে। এখন জানা গেছে, তিনি অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই নন। সেই নামেরই অন্য কেউ। অথবা এমনও হতে পারে ফেইক আইডি থেকে আসল ঐশ্বরিয়ার নাম ব্যবহার করে সালমানের বিরুদ্ধে নিন্দা করা হয়েছে।

কেননা সালমানের নিন্দার এ ঘটনাটি প্রসঙ্গে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছিলেন অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই। তিনি এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘যারা দেশের প্রতিনিধি হিসেবে ভালো কাজ করছেন এবং দেশের যে কোনো পেশা সেটা খেলাধুলা, শিল্প অথবা মিউজিক যাই হোক না কেন তা দিয়ে কিছু করছেন বা করার চেষ্টা করছেন, আমি মনে করি এটি খুবই ভালো একটি ব্যাপার এবং প্রত্যেকেরই স্বীকৃতি পাওয়া উচিত।’

সম্প্রতি আরেক প্রাক্তন প্রেমিকা ক্যাটরিনাকেও নিজের পাশে পেয়েছেন সল্লু ভাই। এই বিতর্ক প্রসঙ্গে ক্যাটরিনা বলেন, ‘সালমানের সঙ্গে বিতর্ক তো নতুন কিছু নয়।’

আগামী ৫ আগস্ট থেকে শুরু হয়ে ২১ আগস্ট পর্যন্ত চলবে এবারের অলিম্পিক আসর। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে মারাকানা স্টেডিয়ামে।