মেইন ম্যেনু

আড়িয়ল বিলে বিমানবন্দর নির্মানের দাবী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে ভিডিও কনফারেন্সে পুনরায় আড়িয়ল বিলে বিমানবন্দর নির্মানের উদ্যোগ গ্রহনের দাবী জানিয়েছেন মুন্সীগঞ্জ-১ আসনের এমপি সুকুমার রঞ্জন ঘোষ। বুধবার সকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শ্রীনগর-লৌহজং পয়েন্টের যশলদিয়ায় পানি শোধনাগার নির্মান প্রকল্প (ফেজ-১) এর ভিত্তি প্রস্তুর উদ্ভোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৩ হাজার ৫শ ৯ কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত প্রকল্পটিতে প্রতিদিন পদ্মা নদী থেকে ৪৫ কোটি লিটার পানি শোধন করা হবে। শোধন কৃত পানি ৩৩ কিলোমিটার পাইপ লাইনের মাধ্যমে ঢাকার ৩৫ লাখ মানুষের ব্যবহারের জন্য প্রেরণ করা হবে। প্রকল্প এলাকায় ইতিমধ্যে প্রায় ৮০ একর জমি অধিগ্রহন করে তা ভরাট করা হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে চীনের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সিএএমসি।

প্রকল্পটির জন্য ভিডিও কনফারেন্সে এমপি সুকুমার রঞ্জন ঘোষ প্রধান মন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে তার কাছ থেকে ত্রিশ সেকেন্ড সময় চেয়ে নেন।এসময় তিনি আড়িয়ল বিলে বিমানবন্ধর নির্মান প্রচেষ্টা প্রথম দফায় ব্যর্থ হওয়ায় প্রধান মন্ত্রীর কাছে ক্ষমা চেয়ে পুনরায় আড়িয়ল বিলে বিমান বন্দর নিমার্নের উদ্যোগ গ্রহনের দাবী জানান। এছাড়া ঢাকার সাথে মুন্সীগঞ্জের চারটি উপজেলার যোগােেযাগ ব্যবস্থা সহজ করার জন্য এমপি সিরাজদিখান উপজেলার বালুর চরে পঞ্চাশ কোটি টাকা ব্যায়ে ধলেশ্বরী নদীর উপড় একটি সেতু নির্মানের দাবী জানালে প্রধানমন্ত্রী সেতুটি নির্মানের আশ্বাষ দেন।

সরকার ২০১১ সালে আড়িয়ল বিলে বিমান বন্দর নির্মানের উদ্যোগ গ্রহন করে। কিন্তুু আড়িয়ল বিলে বিমানবন্দর নির্মানেরর বিরোধীতা করে আড়িয়ল বিল রক্ষা কমিটি আন্দোলন শুরু করে। সাধারণ কৃষকরাও এ আন্দোলনে সামিল হয়। আন্দোলনের একপর্যায়ে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের হাসাড়া এলাকায় বিলবাসী ও পুলিশের সংঘর্ষে এক পুলিশ সদস্য মারা যায়। পরে প্রধানমন্ত্রী ঘোষনা দেন জনগন না চাইলে আড়িয়ল বিলে বিমানবন্দর হবেনা। তা সরিয়ে পদ্মার ওপারে নিয়ে যাওয়া হবে। সরকারের উদ্যোগটি ভেস্তে যাওয়ার চার বছরের মধ্যে আড়িবিলে শুরু হয়েছে ভূমি দস্যুদের থাবা।এতে পাল্টে গেছে বিল এলাকার চিত্র। সাধারণ কৃষকরাও তাদের অবস্থান থেকে সরে আসতে শুরু করেছেন। অপরদিকে গত চার বছরেও সরকার বিমানবন্দর নির্মানের জন্য স্থান নির্বাচন করতে পারেনি। এমন সময় স্থানীয় এমপি আড়িয়ল বিলেই বিমান বন্দর নির্মানের দাবী জানালেন।

প্রধানন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্স অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের এমপি সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ, জেলা প্রশাসক সাইফুল ইসলাম বাদল, পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার, শ্রীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা যতন মারমা, উপজেলা কমিশনার (ভূমি) দিলরুবা শারমিন প্রমূখ।