মেইন ম্যেনু

আ.লীগের টিকেট পেলেন না জ্যোতিকা জ্যোতি

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে প্রার্থী হয়েছিলেন অভিনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি। তিনি ময়মনসিংহ-৩ আসনে লড়তে চেয়েছিলেন। বুধবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয়ে নিজের মনোনয়নপত্র দাখিলও করেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আওয়ামী লীগ তাকে মনোনয়ন দেয়নি।

বৃহস্পতিবার প্রার্থীদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকের পর সন্ধ্যায় প্রার্থী ঘোষণা করে আওয়ামী লীগ। কিন্তু জ্যোতিকে মনোনয়ন দেয়নি আওয়ামী লীগ।

সাবেক স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ও ময়মনসিংহ-৩ গৌরীপুর আসনের সংসদ সদস্য ডা. ক্যাপ্টেন (অব.) মজিবুর রহমান ফকিরের মৃত্যুর পর গৌরীপুর আসনটি শূন্য হয়। শূন্য আসনে এমপি পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে অংশ নিতে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন জ্যোতি।

জ্যোতি তখন বলেছিলেন, ‘আমার এলাকার মানুষের আগ্রহে প্র্রার্থী হয়েছি। মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছি। আমি সবসময়ই বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী ছিলাম। বঙ্গবন্ধু কন্যা আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা যদি আমাকে যোগ্য মনে করে প্রার্থী করেন তাহলে নিশ্চয়ই এলাকাবাসীর আগ্রহ ও ভালোবাসাকে সম্মান জানিয়ে নির্বাচনে লড়াই করবো।’

অভিনয়ের পাশাপাশি রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ার আশা ব্যক্ত করে জ্যোতি আরও বলেন, ‘আর যদি দলীয় প্রার্থী নাও হতে পারি তাও আফসোস নেই। এলাকাবাসী আমার প্রতি যে ভালোবাসা প্রদর্শন করেছে তা রাজনীতিতে আমাকে আগামী দিনের পথ চলতে সাহায্য করবে।’

মনোনয়ন না পাওয়ার বিষয়ে জানতে জ্যোতির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তার মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

তফসিল অনুযায়ী আগামী ১৮ জুলাই গৌরীপুর শূন্য আসনে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

মঞ্চ, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রে সমানতালে অভিনয় করে দর্শকনন্দিত হয়েছেন জ্যোতি। পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক আন্দোলনেও সোচ্চার ছিলেন তিনি। জ্যোতিকা জ্যোতি ২০০৪ সালে লাক্স-আনন্দধারা ফটোজেনিক প্রতিযোগিতায় সেরা দশে স্থান করে নিয়েছিলেন।