মেইন ম্যেনু

আ.লীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৩০, সাংসদের গাড়ি ভাঙচুর

রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার রসুলপুরে আওয়ামী লীগের আব্দুল মজিদ ও মোজাম্মেল হকের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে চারজনকে সংকটাপন্ন অবস্থায় রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। এসময় বিক্ষুব্ধরা স্থানীয় সাংসদ আব্দুল ওয়াদুদ দারা ও উপজেলা চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের গাড়ি ভাঙচুর করেন। ঘটনার পর থেকে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, দুর্গাপুর জয়নগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রার্থী নির্বাচনের উদ্দেশ্যে শনিবার বিকেলে রসুলপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বর্ধিত সভা আহ্বান করা হয়। ওই সভাস্থলে নেতা-কর্মীরা সমবেত হন। এসময় সভাস্থলে রাখা স্থানীয় সাংসদ আব্দুল ওয়াদুদ দারা ও উপজেলা চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের গাড়ি ভাঙচুর করেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদের সমর্থকরা।

বিষয়টি সাংসদের সমর্থক দাওকান্দি কলেজের অধ্যক্ষ মোজাম্মেল হক শুনলে তারা আব্দুল মজিদের সমর্থকদের ওপর হামলা চালান। এসময় উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনে।

এরপর পুলিশ সদস্যরা সাংসদ আব্দুল ওয়াদুদ দারা ও উপজেলা চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামকে উদ্ধার করে উপজেলা পরিষদে নিয়ে আসেন। সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সাংসদ দারা ও উপজেলা চেয়ারম্যান সেখানে অবস্থান করছিলেন।

এদিকে স্থানীয় একটি সূত্র জানায়, সন্ধ্যা সোয়া ৬টা পর্যন্ত মোজাম্মেল হক ও আব্দুল মজিদের সমর্থকদের মধ্যে থেমে থেমে সংঘর্ষ চলছিল।

দুর্গাপুর থানার ওসি পরিমল চক্রবর্তী জানান, পরিস্থিতি এখন পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। সাংসদ দারা ও উপজেলা চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম সুস্থ রয়েছেন।