মেইন ম্যেনু

আ.লীগ বিপদে পড়লেই জঙ্গি নিধনের নাটক করে

গোটা বাংলাদেশ আজ নির্যাতিত খাদিজা, রিশা, তনুর প্রতিচ্ছবি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার পরিষদ আয়োজিত এক মানববন্ধনে এ মন্তব্য করেন তিনি। খাদিজাকে অবিলম্বে বিদেশে পাঠিয়ে সু-চিকিৎসার দাবিতে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

গেল ২৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ডিগ্রির (পাস) ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসকে কুপিয়ে জখম করেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক বদরুল আলম (২৭)।

আলাল বলেন, দেশে আজ শুধু খাদিজা, রিশা, তনু, মিতু নির্যাতিত নয়। গোটা বাংলাদেশের মানুষ আজ ছাত্রলীগ কর্তৃক নির্যাতিত।

বিএনপির এই নেতা বলেন, চাপাতি যখন ছাত্রলীগ নেতা বদরুলদের হাতে থাকে তখন সেটা হয় মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং অন্যদের হাতে থাকলে তারা হয় জঙ্গি। এই হল বর্তমান দেশের অবস্থা। বিচার যদি শুধু বিরোধী দলের বেলায় হয় তাহলে খাদিজা তনুর মতো ঘটনা আরও ঘটবে বলেও মন্তব্য করেন আলাল।

আওয়ামী লীগ জঙ্গি নিধনের নাটক করছে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, তারা (আ.লীগ) যখন বিপদে এবং জনরোষে পড়ে তখনই জঙ্গি নিধনের নাটক করে।

বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব বলেন, জঙ্গিদেরকে বিচাবর্হিতভূত হত্যা করা হচ্ছে কিন্তু তাদের কোনো পরিচয় দিতে পারছে না। নিশ্চয়ই এর মধ্যেও কিন্তু রয়েছে।

আয়োজক সংগঠনের উপদেষ্টা কাজী মনিরুজ্জামান মনিরের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরো বক্তব্য দেন- বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মাদ রহমতউল্লাহ, বিএনপি নেতা অ্যাড. আবেদ রাজা, ইসমাইল তালুকদার খোকন, শাহ মো. মাসুম বিল্লাহ, এম জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।