মেইন ম্যেনু

ইইউভুক্ত দেশে অবৈধ ৮০ হাজার বাংলাদেশি রয়েছে

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নভুক্ত (ইইউ) দেশগুলোতে প্রায় ৮০ হাজার অবৈধ অভিবাসী আছে বলে ইইউ থেকে জানানো হয়েছে। দেশগুলোর প্রতিনিধিদল এ তথ্য দিলেও সুনির্দিষ্টভাবে কিছু জানায়নি। তবে যাচাই-বাছাই করে যদি এ রকম অভিবাসী থাকে তাহলে তাদের দেশে ফেরত আনা হবে বলে তাদের আশ্বস্ত করা হয়েছে।

সোমবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তার নিজ কক্ষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

বিকেল ৩ টার দিকে ইইউর ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল ক্রিশ্চিয়ান লিফেলারের নেতৃত্বে ৬ সদস্যের একটি দল মন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন। পরে প্রায় দেড় ঘণ্টা বৈঠক শেষে তারা বেরিয়ে যান। এ সময় তারা অবৈধ অভিবাসীদের সংখ্যা এবং তারা কি কারণে অবৈধ হয়েছেন তা মন্ত্রীকে অবহিত করেন। পরে মন্ত্রী সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, তারা বলেছে ট্যুরিস্ট, ব্যবসায়ী ও ছাত্রসহ এদেশের অনেকেই ইইউভুক্ত রাষ্ট্রে বসবাস করছেন। তবে তাদের সংখ্যা অনুমান নির্ভর। পরে প্রতিনিধিদলকে বলা হয়েছে, যাদের অবৈধ অভিবাসী হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে তাদের নাম-ঠিকানাসহ সুনির্দিষ্ট তথ্য দিতে। একই সঙ্গে তারা কিভাবে অবৈধ হলো তাও জানাতে অনুরোধ করা হয়। পরে তাদের আশ্বস্ত করা হয়েছে এ রকম কোনো অভিবাসী থাকলে তাদের অবশ্যই দেশে ফেরত আনা হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, প্রতিনিধিদলকে বলা হয়েছে আমরাও এ সমস্যায় আছি। এখানে ৩ লাখ রোহিঙ্গা এবং ২ হাজার পাকিস্তানি রয়েছে। যারা অবৈধভাবে বসবাস করছেন। কিন্তু ওইসব দেশের সঙ্গে আলোচনা করেও তাদের স্ব-স্ব দেশে ফেরত দেওয়া যাচ্ছে না। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকারের একারপক্ষে নয়, প্রয়োজনে ইইউ তাদের সহযোগিতা করতে পারেন।

এক প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, দলটি একটি চুক্তি করতে চেয়েছিল। কিন্তু আমরা বলেছি বিস্তারিত জেনে পরবর্তীতে জানানো হবে। চুক্তির ব্যাপারে সরকারের আপাতত কোনো চিন্তা-ভাবনা নেই। একটি চুক্তি করলে তার অনেক কিছু দেখতে হয়।

এ সময় মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।



« (পূর্বের সংবাদ)