মেইন ম্যেনু

ইউপি নিবার্চন: ইয়াবা প্রার্থীদের টাকার ছড়াছড়ি

ফয়েজুল ইসলাম রানা, টেকনাফ (কক্সবাজার) থেকে: টেকনাফের চার ইউনিয়নের নিবার্চন আর মাত্র ১০দিন বাকী। এ স্বল্প সময়ে ভোটারদের মন জয় করার জন্য প্রার্থীরা নানা কৌশলে মেতে উঠেছে। ভোটারদের মতে, টেকনাফের এবারের নিবার্চনের অতীতের নিবার্চনের চেয়ে সম্পূর্ণ ভিন্ন। অন্যান্য বারে ভোটারগণ প্রার্থীদের যোগ্যতা, মেধা, দক্ষতা ও বংশ পরিচয় দেখে ভোট প্রদান করলেও কিন্তু এবারে তা সম্পূর্ণ বিপরিত হয়ে যাচ্ছে।

ভোটারেরা জানান, অতীতে প্রার্থীর সংখ্যা খুবই কম ছিল। প্রার্থীদের ছিলনা ততবেশী অর্থ কড়ি। প্রার্থীদের অনেকেই ছিল বয়জ্যষ্ট। কিন্ত এবারের নিবার্চনে সম্পূর্ণ পরিবর্তন এসেছে। প্রার্থীর সংখ্যা অনেকাংশে বেড়েই চলেছে। বয় জ্যষ্টদের চেয়ে তরুনদের সংখ্যা বেশী।

বিশেষ করে ইয়াবা, মানবপাচারকারী তালিকা ভূক্ত, হত্যা, ডাকাতি ইত্যাদি মামলার আসামিগণ প্রার্থী হয়েছেন। এরা নিবার্চনে আচারণ বিধি সর্ম্পূণ লংঘন করে বস্তা বস্তা টাকা খরচ করে নিবার্চিত হওয়ার আপপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছে। আবার অনেকেই জেল কারাগার থেকে নিবার্চন করছে। আবার অনেকেই পলাতক থেকে নিবার্চন করছে। এরা যেমনি বস্তা বস্তা টাকা খরচ করছে তেমনি ভোটারদের কাছে আনার জন্য লম্বা লম্বা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে। এখানে যোগ্য, মেধা ভিত্তিক প্রার্থীগণ পড়েছে বিপাকে। এদের একটি মাত্র দাবী প্রশাসন, নিবার্চন কমিশন ও আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা মানবাপাচারকারী ও ইয়াবা ব্যবসায়ী প্রার্থীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে এবারে নিবার্চনে যোগ্য, সৎ ও মেধাবী প্রার্থী জয় হয়ে আসতে পারবেনা। এ ব্যাপারে নিবার্চনের সময়ের মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়া জরুরী।