মেইন ম্যেনু

ইউরোপের দেশগুলোতে বৈধ পথে দক্ষতা অনুযায়ী কাজ ও বসবাস করার সুযোগ

উন্নত বিশ্বের দেশগুলোতে কাজ করতে কার না ইচ্ছে হয়।তা যদি হয় ইউরোপিয়ান দেশভুক্ত তা হলে তো কথাই নেই।বাংলাদেশ থেকে প্রতি বছর কয়েক লক্ষ লোক অল্প কিছু টাকার জন্য মধ্যেপ্রাচ্য বা মালয়েশিয়া অথবা সিঙ্গাপুরে মানবেতর জীবন যাপন করেন।অথচ একটু পরিকল্পনা আর সঠিক দিক-নির্দেশনা অনুযায়ী আগাতে পারলেই সহজেই ইউরোপের দেশগুলোতে গয়ে কাজ করা সম্ভব। অনেকেই মনে করেন অবৈধ উপায় ছাড়া ইউরোপে যাওয়া সম্ভব নয়। বিষয়টি কিন্তু তা নয়। সঠিক উপায়ে ফাইল প্রসেস করলে ইউরোপের যে কোন দেশে গিয়ে নিজের দক্ষতা অনুযায়ী কাজ ও বসবাস করা সম্ভব। আর একটি গুরুত্বপুর্ন বিষয় হচ্ছে, ইউরোপের দেশগুলোতে কাজ করার অভিজ্ঞতা থাকলে পরবর্তীতে PR পাওয়া যায় অতি সহজেই।তবে একটি বিষয় লক্ষ্ রাখতে হবে আর তা হচ্ছে দক্ষতা। অদক্ষ লোকের কোন কাজ নেই ইউরোপে। আপনি যে কাজে Trade Skill Worker Visa নিয়ে যেতে চাচ্ছেন, সংশ্লিষ্ট কাজে আপনার নুন্যতম যোগ্যতা থাকতেই হবে।যোগ্যতা বলতে শিক্ষাগত যোগ্যতা ও কাজের অভিজ্ঞতাকে বুঝানো হচ্ছে।কোন কোন দেশে ইংরেজীতে নুন্যতম কিছু জ্ঞানেরও প্রয়োজন পড়ে।এই মুহুর্তে স্বল্প সময়ে ও সহজে আবেদন করে যাওয়া যায়, এমন কিছু দেশ সম্পর্কে কিছু ধারনা দেওয়া যায়।

নরওয়ে ও পোল্যান্ডে ট্রেড স্কিল জব ভিসা: হোটেল, রেষ্টুরেন্টে বা কনস্ট্রাকশন কাজে আপনার যদি পূর্বের কাজের অভিজ্ঞতা থাকে এবং সংশ্লিষ্ট কাজে নুন্যতম 06 মাসের ট্রেনিং থাকে তবে আপনি 04 মাসের মধ্যে জব সহ দেশদুটিতে কাজের জন্য যেতে পারেন।প্রচুর আয় করার সুযোগ, নিরাপদ জীবন এবং PR পাবার সম্ভবনা আছে।নিরাপত্তার দিক থেকে নরওয়েকে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ দেশ বলা হয়ে থাকে।

Portugal Work Permit Visa: পুর্তগালে জরুরী ভিক্তিতে 02 বছরের ভিসা করা সম্ভব।21 থেকে 35 বছরের মধ্যে বয়সী যে কেউ আবেদন করে যেতে পারেন উন্নত এই দেশটিতে।পুর্তগালে আবেদন করলে IELTS এবং Interview প্রয়োজন হয় না।শুধুমাত্র নির্দিষ্ট কিছু কাজের জন্যই এই দেশটিতে যাওয়া সম্ভব।

ইউক্রেন সিটিজেনশিপ প্রোগ্রাম: প্রায় 10,000 মার্কিন ডলার মাথাপিছু আয়ের দেশ ইউক্রেন।পৃথিবীর মধ্যে বর্তমান সবচেয়ে কম সময়ে পাসপোর্ট পাওয়া যায় দেশটিতে। বসবাস ও ব্যবসা করার জন্য রয়েছে অসাধারন কিছু সুযোগ-সুবিধা। বাংলাদেশী নাগরিকদের জন্য প্রোগ্রামটি উন্মুক্ত রয়েছে। প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ আবেদন করলেই আপনি জানতে পারছেন আপনার সম্ভবনা কতটুকু।করুন।এই প্রোগ্রামের অধীনে মাত্র ০১ বছরের মধ্যে ইউক্রেনের পাসপোর্ট পাওয়া সম্ভব।

প্রকৃত আগ্রহী ও নুন্যতম যোগ্যতাধারীগন দেরী না করে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ আন্তর্জাতিক অভিবাসনবিষয়ক আইনজীবী, ওয়ার্ল্ডওয়াইড মাইগ্রেশন কনসালট্যান্টস লিমিটেডের চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ড. শেখ সালাহউদ্দিন আহমেদ রাজুর সাথে সরাসরি দেখা করতে 1966041333,01993843340 এই নাম্বারে ফোন করে উনার এপয়েন্টমেন্ট গ্রহন করুন অথবা পূর্ণাঙ্গ জীবনবৃত্তান্ত পাঠাতে পারেন এই ই-মেইল [email protected] ঠিকানায় ।

এ ছাড়া যোগাযোগ করতে পারেন হোয়াটসঅ্যাপ অথবা ভাইবারে +৬০১৪৩৩০০৬৩৯ নম্বরে। এ ছাড়া ভিজিট করুন www.wwbmc.com. ওয়েবসাইটে। ঢাকার উত্তরায় ৭ নম্বর সেক্টরের ৫১ সোনারগাঁও জনপথে অবস্থিত খান টাওয়ারে ওয়ার্ল্ডওয়াইড মাইগ্রেশন লিমিটেডের অফিসেও খোঁজ নিতে পারেন। ফোনে প্রাথমিক তথ্যর জন্য কথা বলতে পারেন 01966041555, 01977014778,01966041888,01993843339, 01993843340 নম্বরে।