মেইন ম্যেনু

ইজিপিপি প্রকল্পের শ্রমিককের মজুরী ফিরিয়ে দিল লামা ইউএনও

মোহাম্মদ শামছুদ্দোহা, উপজেলা সংবাদদাতা, লামা (বান্দরবান): বান্দরবানের লামার রুপসীপাড়া ইউনিয়নের অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচী’র (ইজিপিপি) শ্রমিকের শ্রমের টাকা আত্মসাৎ করেছে প্রকল্প চেয়ারম্যান ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার হাসিনা বেগম। ক্ষতিগ্রস্থ শ্রমিক ছোবাহান মিয়া ও মোঃ জামাল বুধবার বেলা ২টায় বিষয়টি জানিয়ে লিখিত অভিযোগ করে লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার খালেদ মাহমুদ অভিযুক্ত মহিলা মেম্বারকে মুহুর্তে ডেকে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণে পদক্ষেপ নিতে চাইলে দ্রুত শ্রমিকদের টাকা ফেরত দিয়ে দেয়।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, লামার রুপসীপাড়া ইউনিয়নের অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচী’র (ইজিপিপি) অধিনে ১নং ওয়ার্ডে ১৭ জন শ্রমিক ৪০ দিন কাজ করে। প্রত্যেকে দৈনিক ২শত টাকা মজুরী হারে ৮ হাজার টাকার মধ্যে ১ হাজার ব্যাংক জমা রেখে ৭ হাজার টাকা পাওয়ার কথা। কিন্তু প্রকল্প চেয়ারম্যান ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার হাসিনা বেগম সবার কাছ থেকে চেক বই নিয়ে নিজে টাকা উত্তোলন করে কাউকে ১ হাজার কাউকে ৩ হাজার দিয়ে বাকী টাকা আত্মসাৎ করে। বিষয়টি মেনে নিতে না পেরে শ্রমিক ছোবাহান মিয়া ও মোঃ জামাল স্থানীয় এক সাংবাদিককে জানায়। তার সহায়তায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে গেলে ক্ষমা চেয়ে অভিযুক্তদের টাকা ফেরত দিয়ে রেহাই পায় মহিলা মেম্বার হাসিনা বেগম। নুরজাহান বেগম ৬ হাজার ৪শত পঁচাত্তর, ছোবাহান মিয়া ৭ হাজার ও মোঃ জামাল ৬ হাজার ৬শত পঞ্চাশ টাকা মজুরী ফিরে পেলেন।

লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার খালেদ মাহমুদ বলেন, এই অপরাধ মেনে নেয়ার মত নয়।

অভিযোগকারীদের অনুরোধে, মহিলা হওয়ায় ও দোষ স্বীকার করায় এইবারের মত ক্ষমা করা হয়েছে। আগামী বার থেকে আমি নিজে মনিটরিং করব। সরকারের উন্নয়নে যারা অনিয়ম করবে তাদের ক্ষমা করা হবেনা।