মেইন ম্যেনু

ইতিহাসের প্রথম গাড়ি দুর্ঘটনা

শামীমা নাসরিন রিপা : মানব জীবনের জন্য গাড়ি দারুণ এক আবিস্কার। তবে গাড়ি দুর্ঘটনা মানব জীবনের একটি অভিশপ্ত ঘটনা। যারা গাড়ি দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন এবং অঙ্গহানির মাধ্যমে বেঁচে আছেন শুধু তারাই জানেন কী দুর্বিসহ এ জীবন। কী রোমহর্ষক দুর্ঘটনার দৃশ্য। প্রতিদিন পৃথিবীতে হাজার হাজার মানুষ এই গাড়ি দুর্ঘটনায় প্রাণ হারাচ্ছেন।

ইতিহাসে প্রথম কবে গাড়ি দুর্ঘটনা ঘটেছিল সেটা নিয়ে ভিন্ন মত রয়েছে। কারো কারো মতে প্রায় ২৫০ বছর আগে ফ্রান্সে ঘটেছিল প্রথম গাড়ি দুর্ঘটনার ঘটনা। ইতিহাসের প্রথম সেই গাড়ি দুর্ঘটনার সঙ্গে জড়িয়ে আছে ফ্রান্সের বিখ্যাত উদ্ভাবক নিকোলাস জোসেফ কিউনট। আর ঘটনাটি ঘটেছিল ১৭৭১ সালে।

নিকোলাস জোসেফ প্রথম স্বয়ংক্রিয় ইঞ্জিনচালিত যান উদ্ভাবন করেছিলেন। আর সেটা ছিল প্রথম কোনো যান যেটা একজন যাত্রী বহন করতে পারত। এটাই ছিল যাত্রীবহন করতে সক্ষম ইতিহাসের প্রথম বাষ্পচালিত গাড়ি। তবে এটার ব্যবহার খুব বেশি বিস্তৃতি লাভ করেনি। যা হোক, ১৭৬৯ সালে নিকোলাস জোসেফ ফ্রান্সের কর্মকর্তাদের তার উদ্ভাবিত গাড়ির নকশা দেখালেন এবং জানালেন যে এই গাড়ি সেনাবাহিনীর একটি কামান বহন করতে পারবে। তবে ১৭৭১ সালের আগে নিকোলাস কাউকে তার সেই গাড়ি দেখাননি। অবশেষে ১৭৭১ সালে নিকোলাস ফ্রান্সের কর্মকর্তাদের আমন্ত্রণ জানালেন তার উদ্ভাবিত গাড়ির প্রথম যাত্রা দেখার জন্য। কিন্তু সেদিন গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ঘণ্টায় ২ কিলোমিটার গতিতে পাশের বাগানের দেয়ালে আছড়ে পড়ে। অবশ্য এতে কেউ হতাহত হয়নি। এটা প্রথম গাড়ি দুর্ঘটনা হলেও আলোচিত কিংবা স্বীকৃত নয়।

এর ঠিক ৯৮ বছর পর ১৮৬৯ সালে প্রথম স্বীকৃত ও আলোচিত গাড়ি দুর্ঘটনা সংঘটিত হয়। তাতে অবশ্য একজন মৃত্যুবরণও করেন। ১৮৬৯ সালের ৩১ আগস্ট আয়ারল্যান্ডের বির শহরে বিখ্যাত লেখক ও নারী বিজ্ঞানী ম্যারি ওয়ার্ড প্রথম কোনো ব্যক্তি হিসেবে গাড়ি দুর্ঘটনায় নিহত হোন। সেদিন ম্যারি ও তার তিন সঙ্গী বাষ্পচালিত গাড়িতে আনন্দ ভ্রমণ করতে বেরিয়েছিলেন। হঠাৎ তাদের বহনকারী গাড়িটি সজোরে ধাক্কা খায়। তাতে ম্যারি তার আসন থেকে ছিটকে রাস্তায় পড়ে যান। তখন আরেকটি গাড়ি তার ওপর দিয়ে যায় এবং ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। লেখক ও নারী বিজ্ঞানী ম্যারির মৃত্যুর জন্য তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। মামলা হয় এবং সেটি আদালত পর্যন্ত গড়ায়। শেষমেষ তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে তার মৃত্যুটি দুর্ঘটনাবশতই ছিল বলে উল্লেখ করা হয়। তার মৃত্যুর জন্য যে গাড়িটি সজোরে ধাক্কা দেওয়াটা দায়ী ছিল সেটা প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়নি। তার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী ছিল না।

১৮৯১ সালে আমেরিকায় প্রথম গাড়ি দুর্ঘটনা ঘটে। আর ১৮৯৬ সালে ইংল্যান্ডের মাটিতে প্রথম গাড়ি দুর্ঘটনা ঘটে। ইংল্যান্ডে প্রথম গাড়ি দুর্ঘটনার শিকার হোন ব্রাইগেট ড্রিসকল। ঘণ্টায় ৪ কিলোমিটার গতিসম্পন্ন গাড়ির নিচে পড়ে তিনি মারা যান। অনেকে প্রশ্ন করতে পারেন যে, মানুষের হাঁটার গতির চেয়ে কম গতিসম্পন্ন গাড়ির নিচে পড়ে কীভাবে একজন মানুষ মারা যায়? প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, ব্রাইগেট ড্রিসকল গাড়ি আসতে দেখে ভয়ে রাস্তার মধ্যে দাঁড়িয়ে যান। আর চালক গাড়ির গতি নিয়ন্ত্রণ করতে করতে ড্রিসকলকে চাপা দেয়। আর তিনি মারা যান।

আমেরিকায় প্রথম যে গাড়ি দুর্ঘটনাটি ঘটেছিল তাতে কেউ হতাহত হয়নি। ১৮৯১ সালে অহিওতে গাড়ি দুর্ঘটনার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন বিখ্যাত অটোমোবাইলস কিংবদন্তি জন উইলিয়াম ল্যাম্বার্ট। সেদিন ল্যাম্বার্ট গাড়ি চালাচ্ছিলেন। হঠাৎ গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের একটি গাছের গোড়ায় আঘাত হানে। সবাই অবশ্য নিরাপদে গাড়ি নেমে আসতে পারেন। এই দুর্ঘটনার পর জন উইলিয়াম ল্যাম্বার্ট গাড়ির স্টিয়ারিং উদ্ভাবন করেন।