মেইন ম্যেনু

ইনিই সেই ঘটনার নায়িকা

ইনিই সেই ঘটনার নায়িকা, যিনি তার স্কুলের সেই ছাত্রকে বাধ্য করেছিলেন। সেই অভিযোগে শিক্ষিকার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা হয়েছে।

অল্পবয়স্ক ছাত্রের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ায় এখন পালিয়ে বেড়াতে হচ্ছে টেক্সাসের একটি স্কুলের ইংরেজির শিক্ষিকাকে। এরই মধ্যে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে টেক্সাস পুলিশ। অভিযোগ প্রমাণ হলে ২৫ বছর অবধি জেল হতে পারে ওই শিক্ষিকার।

হ্যারিস কাউন্টির স্টোভাল মিডল স্কুলের এই শিক্ষিকা অ্যালেক্সজান্দ্রিয়া ভেরা সন্তান-সম্ভবা হয়ে পড়ার পরই ছাত্রের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার ঘটনাটি প্রকাশ্যে চলে আসে।

তবে স্কুলের প্রিন্সিপালের কাছে এ সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেননি বছর চব্বিশের এই শিক্ষিকা। এর পরই পুলিশ তাকে গ্রেফতারের তোরজোড় করায় গ্রেফতার এড়াতে তিনি গা-ঢাকা দিতে বাধ্যে হয়েছেন।

জানা যায়, তিনি যে স্কুলের শিক্ষিকা, সেখানকারই বছর তেরোর এক ছাত্রের সঙ্গে তার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সেই সম্পর্কের জেরে আলোচনায় চলে আসেন তিনি।

পুলিশের প্রাথমিক জেরায় অ্যালেক্সজান্দ্রিয়া জানিয়েছিলেন, প্রথমদিকে তিনি ওই ছাত্রটিকে ঠেকানোর চেষ্টা করেছিলেন। যদিও তদন্তের পর সেই দাবি সত্যি নয় বলেই মনে করছে পুলিশ।

ওই শিক্ষিকা পুলিশকে জানান, ২০১৫-এর সেপ্টেম্বর থেকে ২০১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত তাদের মধ্যে সম্পর্ক ছিল। ওই সময়কালে তাদের প্রায় প্রতিদিনই সাক্ষাৎ হতো।

অ্যালেক্সজান্দ্রিয়া ভেরার এ স্বীকারোক্তির পরই যে ছাত্রটি নাবালক, তাই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।