মেইন ম্যেনু

ইফতারে ঠান্ডা সুস্বাদু শরবত

এই গরম এবং বৃষ্টিময় আবহাওয়ায় সারাদিন রোজা থাকার পরে এক গ্লাস সুস্বাদু শরবত পানে প্রাণ তো জুড়াবেই সাথে স্বাস্থ্যটাও রক্ষা পাবে ষোল আনা। তাই ইফতার আয়োজনের বড় একটা অংশ দখল করে আছে হরেক রকমের শরবত। আর এসব শরবতের মধ্যেও আছে নানার প্রকার ভেদ, আছে সে অনুযায়ী গ্রহীতা। তাই আজ আমরা কয়েক রকমের শরবত তৈরির পদ্ধতি দেখব যাতে করে পছন্দ মত আমরা আমাদের প্রিয় শরবত তৈরি করে নিজেরাই খেতে পারি।

আম-শরবত
উপকরন: ল্যাংড়া আম : ৬ টি, টক দই : ৫০০ গ্রাম, ডানো ক্রিম : ২০০গ্রাম, কনডেন্স মিল্ক : ১ টিন, সাজানোর জন্য: পেস্তা বাদাম : প্রয়োজনমত।
প্রস্তুত প্রনালি: প্রথমে ব্লেন্ডারে আমের টুকরোগুলোর সাথে একে একে টক দই , ডানো ক্রিম , এবং কনডেন্স মিল্ক দিয়ে হাইস্পিডে ব্লেন্ডার করে নিন । এবার পরিবেশন পাত্রে কিছু আমের টুকরো রেখে এর ওপর ব্লেন্ড করা মিশ্রণটি ঢেলে নিন । সবশেষে ওপরে পেস্তাবাদাম দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন দারুন স্বাদের আমের শরবত ।

আপেল-শরবত
উপকরণ : ২টি আপেল, চিনি, বরফ কুচি, পুদিনা পাতা।
প্রস্তুত প্রণালি : আপেল ভালো মতো পরিষ্কার করে কেটে রস বের করতে বেল্গন্ডারের মধ্যে নিন (তাতে যেন কোনো খোসা বা বিচি না থাকে)। তারপর ছেঁকে নিন যাতে শরবত পরিষ্কার দেখা যায়। মিনারেল পানি, পরিমাণ মতো চিনি মিশিয়ে ২০ মিনিট ফ্রিজে রেখে দিন। ২০ মিনিট পর ফ্রিজ থেকে বের করে বরফ কুচি আর পুদিনা পাতা দিয়ে পরিবেশন করুন।

স্ট্রবেরি-শরবত
উপকরণ : স্ট্রবেরি এক কাপ, চিনি পরিমাণমত, আইসক্রিম এক-দুই কাপ, ঠাণ্ডা দুধ দুই কাপ, বরফ কুচি তিন-চার টুকরা, চেরি দুই-তিনটি।

প্রস্তুত প্রণালী : প্রথমে স্ট্রবেরিগুলোকে টুকরা করে নিয়ে চিনি মিশিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। এবার একটি গ্লাসে ঢেলে দুধ মিশিয়ে উপরে আইসক্রিম, চেরি ও বরফ কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন।

লেবু-শরবত
উপকরণ : ফ্রেশ লেবু, বিট লবণ, চিনি, গোলমরিচ, পুদিনা পাতা, বরফ কুচি।
প্রস্তুত প্রণালি : লেবু ভালো মতো পরিষ্কার করে কেটে রস বের করে নিন। তাতে মিনারেল পানি, পরিমাণ

মতো বিট লবণ, গোলমরিচ, চিনি মিশিয়ে পুদিনা পাতা দিয়ে ২০ মিনিট ফ্রিজে রেখে দিন। ২০ মিনিট পর ফ্রিজ থেকে বের করে বরফ কুচি আর পুদিনা পাতা দিয়ে পরিবেশন করুন।

মিক্সড ফ্রুট শরবত
উপকরণঃ বাঙ্গি, তরমুজ, আঙ্গুর, কমলা, আপেল সব ফলের টুকরো টুকরো করে তিন কাপ, চিনি এক কাপ, বিটলবণ আধা চা-চামচ, বরফ কুচি ১ কাপ।
প্রস্তুত প্রণালীঃ সব রকম ফলের টুকরো সঙ্গে চিনি, বিটলবণ দিয়ে ব্লেন্ড করুন পানি দিয়ে। ব্লেন্ড করার পর ছেঁকে বরফ কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন।

শাহি পেস্তার শরবত
উপকরণ : দুধ ১ লিটার, পেস্তা বাদাম ১৫/২০টি, সবুজ ফুড কালার ২/৩ ফোঁটা, গোলাপজল ১ টেবিল চামচ, জাফরান সামান্য, চিনি আধা কাপ বা প্রয়োজনমতো।
প্রস্তুত প্রণালি : দুধ জ্বাল দিয়ে ঘন করে নিন। পেস্তা বাদাম বেটে নিন। এবার দুধ চুলায় দিয়ে তাতে চিনি, বাদাম বাটা, পেস্তাবাদাম বাটা, ফুড কালার ও গোলাপজল ভেজানো জাফরান দিয়ে নেড়ে নামিয়ে নিন। ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন ।

রুহ্ আফজার শরবত
উপকরণ : রুহ্ আফজা আধা কাপ, লেবুর রস ১টি, চিনি দেড় কাপ, ইসবগুলের ভুসি ১ টেবিল চামচ, বরফ কুচি ইচ্ছামতো, পানি-২ গ্লাস।
প্রস্তুত প্রণালি : ইসবগুলের ভুসি ছাড়া সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন। পরিবেশনের আগে বরফ কুচি ও ইসবগুলের ভুসি দিয়ে পরিবেশন করুন।

তেঁতুলের শরবত
উপকরণ : তেঁতুলের কস্ফাথ আধা কাপ, চিনি পৌনে এক কাপ, লবণ পরিমাণমতো, জিরা টালা গুঁড়া ১ চা চামচ, শুকনা মরিচ টালা গুঁড়া এক-চতুর্থাংশ চা চামচ, পানি পরিমাণমতো, বরফ পরিবেশনের জন্য, রুহ্ আফজা ২ চা চামচ।
প্রস্তুত প্রণালি : পরিমাণমত পানি দিয়ে সব উপকরণ নিয়ে ব্লেন্ড করুন। বরফ কুচি দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

শসার শরবত
উপকরণ : শসা কুচি ১ কাপ, পানি ২ কাপ, ধনে পাতা কুচি ১ টেবিল চামচ, লবণ পরিমাণমতো, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, বিট লবণ আধা চা চামচ, কাঁচামরিচ কুচি ১টি, বরফ কুচি পরিমাণমতো।
প্রস্তুত প্রণালি : বরফ ছাড়া সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন। ছেঁকে নিন। গ্লাসে ঢেলে বরফ কুচি দিয়ে পরিবেশন