মেইন ম্যেনু

ইবির প্রথম নারী ডিন ড. নুরুন নাহার

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে প্রথম মহিলা ডিন হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন প্রফেসর ড. নুরুন নাহার। ১৭ ডিসেম্বর তাকে আইন ও মুসলিম বিধান বিভাগের ডিন হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে বলে রেজিষ্ট্রার অফিস নিশ্চিত করেছে। ২১ ডিসেম্বর তিনি দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তিনি আগামী দুই বছরের জন্য আইন ও শরিয়াহ অনুষদের ডিন হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

রেজিষ্ট্রার অফিস সূত্রে জানা যায়, আইন ও শরিয়াহ অনুষদের ডিন হিসেবে আইন ও মুসলিম বিভাগের অধ্যাপক ড. নুরুন নাহারকে নিয়োগ দেয়া হয়এদিকে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ পাওয়া প্রথম নারী ডিন হিসেবে ড. নুরুন নাহারকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি, জিয়া পরিষদসহ বিভিন্ন সংগঠন অভিনন্দন জানিয়েছেন।

বিশিষ্ট আইন গ্রন্থ প্রণেতা প্রফেসর ড. নুরুন নাহার বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সদ্য অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নির্বাহী সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া মানবিক আইন, টর্ট আইন ও সাইবার আইনের গ্রন্থ প্রণেতা হিসেবে তার দেশব্যাপী পরিচিতি ও খ্যাতি রয়েছে।

ডিন হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর প্রফেসর ড. নুরুন নাহার বলেন- ‘যে মহৎ উদ্দেশ্য নিয়ে অনুষদের সর্বোচ্চ গুরুত্বপূর্ণ পদে আমাকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে তা সঠিক ভাবে পালনের চেষ্টা করবো। অনুষদের অধীন বিভাগ গুলোর সব ধরণের সমস্যা ও সংকট উত্তোরণের লক্ষ্যে দলমত নির্বিশেষে সকল শিক্ষক-কর্মকতার সহযোগীতা কামনা করছি।’

ভিসি প্রফেসর ড. আবদুল হাকিম সরকার বলেন-‘নারী ক্ষমতায়নের এটি একটি দৃষ্টান্ত। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভাগীয় প্রধান, আইন প্রশাসক হিসেবে নারীরা দায়িত্ব পালন করলেও এবারই প্রথম কোন নারী শিক্ষক ডিন হিসেবে দায়িত্ব নিলেন। এটি বিশ্ববিদ্যালয় ও দেশের জন্য একটি নতুন দৃষ্টান্ত।