মেইন ম্যেনু

ইরাকে আইএসের এলাকায় গণকবরের সন্ধান

ইরাকে চরমপন্থী সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) দখলে থাকা এলাকা থেকে ৫০টিরও বেশি গণকবরের সন্ধান পাওয়া গেছে। জাতিসংঘের বিশেষ দূত জ্যান কুবিস নিরাপত্তা পরিষদকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

গত বছরের মে মাসে ইরাকের রামাদি শহর দখল করে আইএস। ওই বছরেরই ডিসেম্বরে শহরটি পুনর্দখল করে ইরাকি বাহিনী। তবে গত ফেব্রুয়ারিতে শহরটি পুরোপুরি আইএসমুক্ত হয়। গত মাসে শহরটিতে নতুন করে কয়েকটি গণকবরের সন্ধান পাওয়া গেছে। এসব কবর থেকে ৪০ জনের দেহাবশেষ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ছাড়া উত্তর ইরাকে সিনজার এলাকার কাছেও গণকবরের সন্ধান পাওয়া গেছে। স্থানীয় উপজাতি, ইরাকি সেনা, নারী ও সংখ্যালঘু ইয়াজিদি সম্প্রদায়ের লোকজনকে হত্যার লক্ষ্যবস্তু বানাত আইএস।

জ্যান কুবিস জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদকে বলেন, এ ধরনের কর্মকাণ্ড আইএসের ঘৃণ্য অপরাধেরই প্রমাণ। আইএস যোদ্ধাদের বিচারের মুখোমুখি করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।

তিনি বলেন, ‘আইএস ইরাকিদের ওপর যেভাবে হত্যা, অপহরণ, ধর্ষণ ও নির্যাতন অব্যাহত রেখেছে, আমি তার নিন্দা জানাই, যা মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ, যুদ্ধাপরাধ এবং এমনকি গণহত্যা।’

প্রসঙ্গত, গত বছরও সিরিয়ায় আইএসের দখলে থাকা এলাকা থেকে বেশ কয়েকটি গণকবরের সন্ধান পাওয়া গেছে।