মেইন ম্যেনু

ইরানের বিরুদ্ধে নতুন অবরোধ আরোপের প্রস্তুতি যুক্তরাষ্ট্রের

ইরানের ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির সাথে যুক্ত থাকার অভিযোগে তেহরানসহ হংকং ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিভিন্ন ফার্ম ও ব্যক্তির বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপের প্রস্তুতি নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। বুধবার ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।
গত জুলাই মাসে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশগুলোর সাথে তেহরানের পরমাণু চুক্তি স্বাক্ষরের পর ইরানের বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপের ক্ষেত্রে এটি হবে আমেরিকার প্রথম পদক্ষেপ। যদিও ঐ চুক্তির আওতায় তেহরানের বিরুদ্ধে আরোপিত বিভিন্ন অবরোধ ওয়াশিংটনের তুলে নেয়ার কথা রয়েছে।

ঐ প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ বিভাগ ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচিতে সহায়তা করা ইরানের সাথে যুক্ত দুইটি নেটওয়ার্কের ওপর অবরোধ আরোপের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

পরিকল্পিত অবরোধের আওতায় যুক্তরাষ্ট্র কিংবা বিদেশি নাগরিকরা এই দুই নেটওয়ার্কের বিভিন্ন ফার্ম ও ব্যক্তির সাথে বাণিজ্য করতে পারবে না। তবে মার্কিন অর্থ বিভাগের কর্মকর্তারা এই ব্যাপারে তাত্ক্ষণিক কোন মন্তব্য করেননি। এছাড়া ইরান সরকারও সম্ভাব্য নতুন অবরোধের বিষয়ে ঐ জার্নালের প্রতিবেদনের ব্যাপারে কোন মন্তব্য করেনি।

কিন্তু এর আগে ইরানি কর্মকর্তারা সতর্ক করে বলেছেন, এই ধরণের নতুন কোন মার্কিন অবরোধ দেশটির সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি পরমাণু চুক্তির লঙ্ঘন হিসেবেই বিবেচনা করবেন।

তবে মার্কিন কর্মকর্তারা বলছেন, ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি কিংবা মানবাধিকার লঙ্ঘন অথবা আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদকে সমর্থন করার অভিযোগে ইরানের বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপের অধিকার যুক্তরাষ্ট্রের অর্থবিভাগের রয়েছে।

উল্লেখ্য, জুলাইয়ে পরমাণু চুক্তির পর ইরান দুটি ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে। দেশটি বলছে, প্রতিরক্ষার উদ্দেশ্য এই পরীক্ষা চালানো হয়েছে।