মেইন ম্যেনু

ঈদে নখের সাজ

ফারিন সুমাইয়া : সাজলে তোমাকে পরির মতো লাগে। প্রিয় মানুষের মুখে এমন কথা শুনতে কার না ভালো লাগে? আর সাজতে পছন্দ করে না এমন মানুষ পাওয়া বিরল। সাজ বলতে কেবল মুখমণ্ডলের সাজকেই বুঝায় না। আপনার হাতকে সুন্দর করে সাজিয়ে তুলতে নখের যত্ন এবং সাজ শরীরের অংশের মতো জরুরি। নখকে সাজিয়ে তুলে হাতের সৌন্দর্য অনেকাংশে বৃদ্ধি করা যায়।

সময়ের সাথে তরুণীদের নখের ফ্যাশনে যুক্ত হয়েছে বাহারি সব স্টাইল। নখ সাজাতে নেইল আর্ট জনপ্রিয় বেশ আগে থেকেই। পোশাকের সাথে মানিয়ে এখন আর নখে এক রঙ নয়, বরং গাঢ় হরেক রঙের নেইলপালিশ লাগানোর চল শুরু হয়েছে। যারা হালকা রঙ ব্যবহার করতে পছন্দ করেন তাদের জন্য রয়েছে ফ্রেঞ্চ পালিশ।

হাল ফ্যাশনে এক নখে দুটি বা তিনটি কালার বেশ জনপ্রিয়। সোনালী, রুপালি, কফি আর গোলাপি রঙ বেশ কয়েক বছর ধরেই চলছে। এবার জায়গা করে নিয়েছে নীল, সবুজ,হলুদ, কালো রঙ। আপনার নখ যদি বেশ লম্বা হয়ে থাকে তবে তাতে এক সাথে তিনটি রঙ ব্যবহার করতে পারেন। দুটি রঙ চওড়া করে লাগিয়ে আরেকটি রঙ দিয়ে বর্ডাইর আউট লাইন দিতে পারেন।

আজকাল বাজারে নানা ধরনের গ্লিটার নেইলপালিশ পাওয়া যায়। নখ সাজাতে এসব নেইলপালিশ ব্যবহার করতে পারেন। যারা একটু হালকা রঙ পছন্দ করেন তারা সোনালী, রুপালী, ধুসর রঙগুলো ব্যবহার করতে পারেন। আপনার নখ ছোট হলে ফলস নখ কিনে ব্যবহার করতে পারেন।

বাজারে বিভিন্ন ধরনের স্টিকার ও নেইল আর্ট পাওয়া যায়। শুধু নেইলপালিশ নয় গ্লিটারের বর্ডার দিয়ে স্টোন ও ব্যবহার করতে পারেন। গাঢ় রঙের নেইল আর্ট তরুণীদের কাছে জনপ্রিয় হলেও মাঝবয়সীরাও হালকা কয়েকটি রঙ দিয়ে সাজাতে পারেন নখ।

পোশাকের সাথে মিলিয়েও বেছে নিতে পারেন নেইলপালিশের রঙ। এছাড়া লাল-নীল, সাদা-কালো, সোনালী-ধূসর, সবুজ-কমলা, বেগুনী-গোলাপি এভাবে দুটি করে রঙ এক নখে লাগালে সুন্দর লাগবে। ফ্রেঞ্চ পালিশে সাধারণত নখের আগায় সাদা রঙ ব্যবহার করা হয়। যেখানে ভিন্নতা আনার জন্য গাঢ় রঙ ব্যবহার করতে পারেন। কাপ্তান, লেগিংস, টপস বা পশ্চিমা স্টাইলের পোশাকের সাথে নখের সাজ বেশ মানানসই।

নেইলপালিশ লাগিয়ে শুকানোর জন্য অনেক সময় ধরে অপেক্ষা করতে হয়, তাই দ্রুত শুকিয়ে যাওয়ার জন্য নেইলপলিশ লাগানোর পর পরই একটা ছোট্ট বাটিতে বরফ ঠান্ডা পানি নিয়ে তাতে নখগুলো ডুবিয়ে রাখুন। নেইল পালিশ তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাবে।

নখের চারপাশের নেইল পলিশ ছড়িয়ে যাওয়ার ঝক্কি ঝামেলা এড়াতে নেইলপলিশ লাগানোর সময় চারপাশে হালকা তেল লাগিয়ে নিন।

অন্যদিকে নেইলপালিশ ম্যাট করতে চাইলে নেইলপালিশ লাগানোর পর শুকানোর আগেই গরম পানির ভাপের উপর কয়েক সেকেন্ড ধরে রাখুন, নেইলপালিশ আপনার মনের মতো ম্যাট হয়ে যাবে।