মেইন ম্যেনু

ঈদ উৎসবের আগে আরেক উৎসব

পবিত্র রমজান প্রায় শেষ। পুরো বাংলাদেশ ঈদ উৎসবের পস্তুতি নিচ্ছে শেষ সময়ে। ঈদ উৎসবের আগে আরেক উৎসবে মাতলো ১৬ কোটি মানুষ। এই উৎসব দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজে ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ের। ঈদ মানেই আনন্দ। তবে এবারের ঈদের আনন্দ অনেকটাই বাড়িয়ে দিবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ জয়।

ইংল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলা। এরপর দেশের মাটিতে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ। পরাক্রমশালী ভারতের বিপক্ষে সিরিজ জয়। বাংলাদেশ যে পারে, তখনই প্রমাণ হয়েছে। তবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ ছিল বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় পরীক্ষা। ব্যাপারটা ছিল এমন যে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ভালো করতে পারলেই বুঝতে হবে বাংলাদেশ আসলেই দারুণ উন্নতি করেছে। কারণ দক্ষিণ আফ্রিকা জটিল দল। বৈচিত্রপূর্ণ তাদের বোলিং আক্রমণ।

প্রথম ম্যাচ হারলেও পরের ম্যাচে ঘুরে দাঁড়ায় টাইগাররা। ২২ ওভার বাকি থাকতেই ৭ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় স্বাগতিকরা। সিরিজে ১-১ সমতা।

আজ সিরিজ নির্ধারনী ম্যাচে সত্যিকারের চ্যাম্পিয়নদের মতো জ্বলে উঠলো বাংলাদেশ। বল হাতে দারূণ করলেন বোলাররা। বিশেষ করে মুস্তাফিজ, সাকিব এবং রুবেল। দক্ষিণ আফ্রিকা থেমে গেল মাত্র ১৬৮। তখনই ম্যাচের ফল পরিস্কার হয়ে যায়।

ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার তামিম ও সৌম্য সরকারের ব্যাটিং তাণ্ডবে মাতলো পুরো গ্যালরি। সেই সঙ্গে উৎসবে মাতলো পুরো দেশ। ২৬.১ ওভারেই ম্যাচ শেষ। সৌম্য খেললেন ৭৫ বলে ৯০ রানের অসাধারণ ইনিংস। তামিম অপরাজিত থাকেন ৬১ রান করে। ৯ উইকেটের বিরাট জয়।তাও আবার দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দলের বিপক্ষে!