মেইন ম্যেনু

ঈর্ষাকাতর দাদী খুন করলেন অন্যের নাতিকে

নিজের নাতির চেয়ে সুদর্শন কোন শিশু থাকবে তা মানতে রাজী নন চীনের হেনান প্রদেশের লি। ঈর্ষাকাতর দাদীর কাছে প্রতিবেশির পাঁচ বছর বয়সী শিশু সন্তানকে নিজের নাতির চেয়ে বেশি সুন্দর ও স্মার্ট মনে হয়েছিল। কিন্তু নিজের নাতির চেয়ে সুন্দর ও স্মার্ট অন্য কোন শিশুকে বলা হবে এটা মেনে নিতে পারছিলেন না চীনের হেনান প্রদেশের লি। শেষ পর্যন্ত প্রতিবেশির ওই শিশুকে হত্যাই করলেন তিনি।

পাঁচ বছরের ওয়াং মিংহান বাড়ির বাইরে খেলাধুলা করছিল। এসময় তার দাদী গিয়েছিলেন গোসল করতে। গোসল শেষে বের হয়ে আর নাতি খুঁজে পাননি তিনি। এক পর্যায়ে দেখতে পান ওয়াং যেখানে খেলছিল সেখানে কেবল তার জুতা জোড়া পরে আছে। বিষয়টিকে অপহরণ ভেবে পুলিশে খবর দেন তিনি। পরে পুলিশ লিয়ের বাসা থেকে শিশুটির মৃতদেহ উদ্ধার করে। ওয়াংকে হত্যার পর তাকে বাগানে পুঁতে রাখা হয়েছিল। পুলিশের ধারণা হত্যাকাণ্ডের আগের রাতে লি ওই গর্তটি খুঁড়ে রেখেছিলেন।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে লি হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, তার নাতি প্রায় অসুস্থ হয়ে থাকে। তাই ঈর্ষার বশবর্তী হয়ে তিনি তুলনামুলকভাবে সুস্থ, সুন্দর ও স্মার্ট লিকে হত্যা করেছেন।