মেইন ম্যেনু

এইডসে মৃত দলিতকে শ্মশানে পোড়াতে মানা!

বলা হয়ে থাকে, ভারত মঙ্গলে পৌঁছলেও দেশটির মানুষ সেই কুসংস্কারেই ডুবে থাকবে। আর কুসংস্কারের সঙ্গে যদি থাকে বর্ণবাদ, তাহলে তো নির্মমতার মাত্রা আঁচ করাও কঠিন।

ভারতের উড়িষ্যার বালেশ্বরে গত সপ্তাহে এমনই এক নির্মম ঘটনা ঘটেছে।

এইডস আক্রান্ত হয়ে বালেশ্বরের সোরো থানার তেন্তেই গ্রামের এক তরুণ মারা যান। তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন করতে গিয়েই বাঁধে বিপত্তি। শ্মশানে তাকে পোড়াতে বাধা দেয় গ্রামের মাতব্বররা। শেষ পর্যন্ত বাড়ির সামনেই হয় তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া।

জানা গেছে, ওই দলিত তরুণ দীর্ঘদিন মুম্বাইয়ে কর্মরত ছিলেন। গুরুতর অসুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরেন তিনি। কটকের এসসিবি হাসপাতালে গত শুক্রবার তার মৃত্যু হয়।

এরপর পরিবারের সদস্যরা হাসিয়ানিপাড়া শ্মশানে ওই তরুণের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্নের উদ্যোগ নেন। কিন্তু এতে বেঁকে বসেন গ্রামবাসী। গ্রামবাসীর চাপেই শেষ পর্যন্ত বাড়ির কাছে তরুণকে দাহ করতে বাধ্য হয় তার পরিবার।

এইডস কোনো ছোঁয়াচে রোগ নয়। কিন্তু এ ঘটনায় এ রোগের প্রতি সাধারণ মানুষের অজ্ঞতাই যেন ফুটে উঠল। এছাড়াও ওই তরুণ বর্ণবাদের শিকার দলিত সম্প্রদায়ের লোক হওয়ায় এমনটা ঘটে থাকতে পারে।