মেইন ম্যেনু

এই ঈদে নিজেদের অবস্থান ধরে রাখতেই লড়বেন অপু -ববি-ফারিয়া

ঈদ আসলে চলচ্চিত্র প্রেমীরাও অপেক্ষায় থাকেন, তার পছন্দের তারকার ছবি প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে দেখার। কিন্তু এরমধ্যে দর্শক বিবেচনায় কেউবা সফল কেউবা ব্যর্থ তালিকায় নাম লেখান। কিন্তু সবকিছু ছাপিয়ে তারকাদের মধ্যেও চলতে থাকে লড়াই! কে কার থেকে এগিয়ে। কার ছবি কতটা ব্যবসা সফল হল। টেবিল কালেকশন থেকে শুরু করে দর্শকদের উপচে পরা ভীড়- এ সবকিছুর খবরই থাকে তাদের নখদর্পণে।

এবার ঈদে মোট ৪ টি ছবি মুক্তি পাচ্ছে। এরমধ্যে বদিউল আলম খোকনের পরিচালনায় শাকিব খান-অপু বিশ্বাস অভিনীত ‘রাজাবাবু দ্য পাওয়ার’, আব্দুল আজিজের পরিচালায় অঙ্কুশ-নুসরাত ফারিয়া অভিনীত ‘আশিকি’, শাহরিয়ার নাজিম জয়ের পরিচালনায় ‘প্রার্থনা’ ও আশরাফ শিশির পরিচালিত ‘গাড়িওয়ালা’।

ক’টা ছবি মুক্তি পাচ্ছে, ক’টা হল পেয়েছ, সাফল্যের সম্ভাবনা- এসবকিছু ছাপিয়ে অলোচনায় এগিয়ে আছেন তিন নায়িকা। অপু বিশ্বাস, ববি, নুসরাত ফারিয়া- দর্শক, সমালোচক ও নির্মাতাদের কাছে নিজ নিজ অবস্থান দৃঢ় করার জন্য লড়তে হবে তাদের। সাফল্যের স্বাদ কে না চায়? তবে দর্শকপ্রিয়তা কিংবা ব্যস্ততায় ঈদের আগ মুহুর্ত পর্যন্তও আলোচনায় ছিলেন না এই তিন নায়িকা। তাই একে অন্যের সঙ্গে নয়- বরং নিজেকে প্রমাণ করতে কিংবা হারানো অবস্থান ফিরে পেতেই লড়ছেন তারা।

তবে বরাবরেরমত অপু বিশ্বাস এবারও এগিয়ে। কারণ বিগত বছর গুলোর হিসেব বা সর্বশেষ ঈদেও অপু বিশ্বাস ব্যবসা সফল ছবির নায়িকা তকমা পেয়েছেন। তার সর্বশেষ ছবির ‘লাভ ম্যারেজ’ রেকর্ড ভেঙেছিল। ১২১টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছিলো ছবিটি, কিন্তু এবার সে রেকর্ডও ভেঙে গেছে। ‘রাজাবাবু- দ্য পাওয়ার’ সর্বকালের ছবি মুক্তির রেকর্ড ভেঙে মোট ১৬০টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে। এ হিসেবে অপু বিশ্বাস নিজের প্রতিদ্বন্দী নিজেই।

অন্যদিকে নায়িকা ববি সর্বশেষ ‘অ্যাকশন জেসমিন’ ছবিতে পূর্ণাঙ্গ নায়িকা হিসেবে অভিনয় করেছিলেন। এরপর তার আর কোন নতুন ছবিতে সেভাবে দেখা মেলেনি। তবে তারপর ‘আরো ভালোবাসবো তোমায়’ ছবিতে অতিথি চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। ঢাকাই চলচ্চিত্রে নায়িকা সঙ্কট প্রকট, তারপরও নতুন যারা আসছেন তারাও সেভাবে নিজেদের প্রমাণ করতে পারছেন না। অনেকেই ক্যারিয়ারের শুরুতে বেশ খানিকটা আশাবাদ সৃষ্টি করে অল্প সময়ে কালের গহ্বরে হারিয়ে যাচ্ছেন। ববির অবস্থাও তথৈবচ।

যদিও সম্প্রতি ‘মালটা’ নামে একটি ছবিতে পূর্ণাঙ্গ নায়িকা হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন ববি। কিন্তু গত দুই বছরে কয়েকটি ছবি দিয়ে আলোড়ন তুললেও বর্তমানে সেভাবে তিনি আলোচনায় নেই। এর কারণ হিসেবে অনেকেই বলছেন, গ্ল্যামারের জায়গা থেকে ববি শতভাগ পারফেক্ট হলেও অভিনয়ে তিনি খুবই দুর্বল। এ কারণেই পরিচালকরা তাকে নতুন কোনো ছবিতে নিচ্ছেন না। যার কারণে ‘রাজাবাবু’ ছবিটিকেও ববির ক্যারিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট হিসেবে দেখা হচ্ছে।

অপরদিকে জনপ্রিয় উপস্থাপক এবং মডেল নুসরাত ফারিয়া এই প্রথম পা রাখছেন রূপারী দুনিয়ায়। বিজ্ঞাপনচিত্রে গ্ল্যামারাস উপস্থিতি এবং উপস্থাপনায় ভিন্নধর্মী স্টাইলের কারণে দর্শকের নজর কাড়তে সক্ষম হন তিনি। কিন্তু চলচ্চিত্র সম্পূর্ণ ভিন্ন অঙ্গন। এই মাধ্যমে তার সফলতা যাচাই করবে সিনেপ্রেমী দর্শক, ভাগ্য নির্ধারন করবে তারা।

‘আশিকি’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে এবারই প্রথমবারেরমত বড়পর্দায় উপস্থিত হতে যাচ্ছেন নুসরাত ফারিয়া। দর্শক কিভাবে তাকে গ্রহন করে, এটা মুখ্য বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ চলচ্চিত্রে তার আগমনটাও বেশ জাঁকজমকের সাথে। নায়িকা মাহিয়া মাহির সাথে জাজ মাল্টিমিডিয়ার সম্পর্কের অবনতি ঘটার কিছুদিন পর পাঁচতারকা হোটেলে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে জাজ মাল্টিমিডিয়া তাদের নতুন নায়িকা হিসেবে নুসরাত ফারিয়াকে সবার সামনে তুলে ধরেন এবং বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনার ছবির নায়িকা হিসেবে ঘোষনা করেন।

নুসরাত ফারিয়ার সামনে বড় এক পরীক্ষা, তিনি কি পারবেন সফলতার দৌড়ে এগিয়ে যেতে? এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা, ছবি মুক্তির পরেই বোঝা যাবে দর্শক কিভাবে গ্রহণ করছেন তাকে। যদিও সম্প্রতি কলকাতায় মুক্তি পেয়েছে অঙ্কুশ-ফারিয়ার ‘আশিকি’ ছবিটি। জাজ সূত্র থেকে জানা যায়, কলকাতায় ছবিটি ব্যবসায়িক সাফল্যে মুখ থুবড়ে পরেছে। সেই ছবি বাংলাদেশের দর্শকের চাহিদা মেটাতে সক্ষম হবে কি?

প্রশ্ন একটাই- সাফল্যের দৌড়ে বিজয়ীর মুকুট পরবেন কে? অভিজ্ঞ ও স্বীকৃত অপু বিশ্বাস, পরিচিত মুখ ববি নাকি নবাগত নুসরাত ফারিয়া? প্রয়োজন সাফল্য- নায়িকার জন্য না হলেও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র অঙ্গন এবং সিনেপ্রেমী দর্শকের জন্য। ঈদ, উৎসব কিংবা দৈনন্দিন সময়- জনপ্রিয় ও সফল চলচ্চিত্র, প্রতিভাময়ী নায়ক-নায়িকা, মৌলিক কাহিনিচিত্র এবং যোগ্য কলাকুশলী ঘিরে থাকুক আমাদের বাংলা ছবি- আশাবাদ এটাই।