মেইন ম্যেনু

এই ট্রেন প্লেনকেও টেক্কা দিবে !

সব’চে গতি সম্পূর্ণ বাহন প্লেন। আর সেই প্লেনকেও এবার টেক্কা দিবে ট্রেন! ভাবতেই কেমন লাগছে, তাই না? কিন্তু, এটাই সত্যি। আগামী প্রজন্মের ট্রেন প্লেনকেই টেক্কা দিবে। সে সময় এখন আর বেশি দূর নয়। এলো বলে আপনার দোরগড়ায়।

হ্যাঁ প্রযুক্তি। কি না দিচ্ছে আমাদের? সব কিছুই এখন এই প্রযুক্তির কল্যাণে হাতে মুঠোয় পাচ্ছি। তারই পরবর্তিতে আমাদের পাওয়া দ্রুত গতির ট্রেন। প্রজন্ম এমন আসতে চলেছে বুলেট ট্রেন তখন পুরনো, মানুষ রকেট স্পিডে ট্রেনে চড়বে। ট্রেনের মধ্যে বসলে যেন মনে হবে প্লেনে বসে আছেন। এক ষ্টেশন থেকে অন্য ষ্টেশন, কেবল ঘড়ির কাটার পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গেই পৌঁছে যাওয়া যাবে।

‘নেক্সট জেনারেশন ট্রেন’ হবে এমনটাই। ঘণ্টায় ৬০০ কিলোমিটার হবে তার গতি। জাপানের ম্যাগলেভ ট্রেন। ৩৭৩ মাইল বেগে ছুঁটবে এই ট্রেন। এখন পরীক্ষামূলক ভাবে এই ট্রেন চলাচল করছে, তবে আম আদমি এই ট্রেনের সফর করতে পারবে ২০২৭ সাল নাগাদ। এই ট্রেনে ৩০ কিলোমিটার যেতে সময় লাগবে ৮ মিনিট, তার থেকেও কম। চিনেও ম্যাগনেটিক লেভিটেশন প্রযু্ক্তিকে ব্যবহার করে এই ধরনের ট্রেন চলাচল হচ্ছে।

পিছিয়ে নেই ফ্রান্সও। ফ্রান্সের সবচেয়ে দ্রুতগতির ট্রেন চলে ৫৭৪ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা। তাহলে আমরা কবে পাচ্ছি এমন ট্রেন? এখনই তবে ভাবতে বসে যান।