মেইন ম্যেনু

‘এই দামে মুস্তাফিজকে আর পাওয়া যাবে না’

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের এক বছর যেতে না যেতেই তারকা খ্যাতি মুস্তাফিজুর রহমানকে নিয়ে জাতীয় দলের পর বিভিন্ন দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটেও টানাটানি। পাকিস্তান সুপার লিগ(পিএসএল), ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের(আইপিএল) পর ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্রিকেটেও সাসেক্সের হয়ে খেলার জন্য ডাক পান মুস্তাফিজ। আইপিএলের পরই মুস্তাফিজ খেলতে যাবেন কাউন্টি ক্রিকেটে।

কিছুদিন ধরে গুঞ্জন উঠেছে মুস্তাফিজ সাসেক্সে নাও যেতে পারেন। টানা খেলার মধ্যে বিশ্রাম নিয়ে ইনজুরি ঝুঁকি এড়াতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) তাকে কাউন্টি খেলার অনুমতি দেবে কিনা তা নিয়েও সন্দেহ ছিল। তবে, আইপিএলে এখন পর্যন্ত ২১.৪২ গড়ে ১৪টি উইকেট

পাওয়া মুস্তাফিজকে কাউন্টি ক্রিকেটে একটু দেরিতে হলেও কাটার মাস্টারকে দলে চায় সাসেক্স।

যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম আরগাসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মুস্তাফিজকে খেলানোর সম্ভাব্য সব উপায় নিয়ে বসেছে সাসেক্স।

এ প্রসঙ্গে সাসেক্সের অধিনায়ক লুক রাইট বলেন, ফিজ অবশ্যই আসছে। কয়টা ম্যাচ সে খেলবে সেটাই ঠিক করছি আমরা। বুঝতে হবে ও তরুণ। দীর্ঘদিন বাড়ির বাইরে। আর এমন পরিবেশে যেখানে নিজের ভাষায় কথা বলার উপায় নেই। অনেক ম্যাচও খেলেছে। আমরা তাই তাকে যথেষ্ট বিশ্রাম দিতে চাই। যাতে যখন আসে, তখন সেরাটা দিতে পারে।

তিনি বলেন, আগে থেকেই জানতাম প্রথম দুটি ম্যাচ মিস করবে সে। এখন দেখতে হবে আরও একটি ম্যাচ মিস করে কিনা। অসাধারণ ফর্মে সে। তাকে সম্ভাব্য বেশি ম্যাচে খেলাতে চাই।

তিনি আরও বলেন, মুস্তাফিজ দেশের বাইরেও যে ভালো মানের একজন বোলার তা এই মুহূর্তে সে ভারতে থেকে প্রমাণ করেছে। আমরা তার সঙ্গে চুক্তি করে খুবই ভালো করেছি। আমি মনে করে আমরা যে চুক্তির ভিত্তিতে তাকে পেয়েছি ভবিষ্যতে সে এত সস্তা থাকবে না।

শুক্রবার সাসেক্সের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। ১ জুন সাসেক্সের দ্বিতীয় ম্যাচ। হায়দরাবাদ আইপিএল-এর ফাইনালে খেলতে দ্বিতীয় ম্যাচটিও মিস করবেন মুস্তাফিজ। এর দুই দিন পর সারের বিপক্ষে হোম ম্যাচ। ওই ম্যাচ মিস করলেও ১০ জুন কেন্টের বিপক্ষে মুস্তাফিজের খেলা নিশ্চিত বলেই মনে করছে সাসেক্স কর্তৃপক্ষ।