মেইন ম্যেনু

এই ধরনের নারীরাই বিয়ের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত, জানেন কী?

সাধে কি আর লোকে বলে সাথ-পাছ ভেবে তবে সাতপাকে জড়ানো! বিয়ে মানেই হাজারটা টেনশন। হাজারটা প্রত্যাশা। ‘বিয়ে বিশারদ’রা বলেন, এসবই একটু সহজ হয়ে যায় যদি রাশিটা জানা থাকে। রাশি মানুষের চরিত্রের অনেক না-বলা কথা বলে দেয়। বিয়ের ক্ষেত্রে পাত্রী বা পাত্রী নির্বাচনের সময় রাশিকে গুরুত্ব দেন বহু মানুষ। সেই ‘রাশিবিচার’ই বলছে, তিন ধরনের নারী বিয়ের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত।

১) ক্যান্সার ‘ক্যুইন’- স্বামীর জন্য এদের প্রেমের কোনো কমতি নেই। মন উজাড় করে ভালোবাসে এরা। শুধু তাই নয়… এদের হাতে রান্নার জাদু রয়েছে। স্বামী-সন্তান নিয়ে পরিবারই এদের কাছে সব। তাই এ ধরনের নারীকে চোখ বুজে জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিতে পারেন। সারা জীবনটা খুব সুখে থাকবে। স্বামীর কাছ থেকে এদের দাবি শুধুই সততা ও ভালোবাসা।

২) ‘এমপ্রেস’ এরিজ- এরিজ নারীর প্রেমে একবার যে পড়েছে, একমাত্র সে-ই জানে এর মজাটা কোথায়। অত্যন্ত ঋজু ব্যক্তিত্বের মানুষ হন এরা। জীবন ও সম্পর্কের প্রতি এদের দৃষ্টিভঙ্গি খুবই পজেটিভ। এরিজ নারীদের সঙ্গে সম্পর্কে কখনো মরচে পড়ে না। সবসময় একটা বেশ ‘নতুন নতুন’ ব্যাপার থাকে। এরিজ নারীর সাহচর্যে একজন স্বামীর কেরিয়ারে ও সামাজিক উন্নতি নিশ্চিত। এধরনের নারীরা খুবই বাস্তববাদী হন। একজন ব্যক্তিত্বসম্পন্ন পুরুষই এদের প্রথম পছন্দের তালিকায় স্থান পায়।

৩) ‘রুলার’ লিও- এরা যোদ্ধা। যেকোনো বিপদ থেকে এরা আপনাকে শক্ত হাতে রক্ষা করবে। এদের মানসিক শক্তি অসাধারণ। যে কোনো চ্যালেঞ্জ নিতে এরা পিছপা হন না। এরা কখনো আবেগের জোয়ারে ভাসেন না। কোনও সাধারণ পুরুষ এদের পছন্দের নয়। অসাধারণ ব্যক্তিত্বের জন্যই এরা অন্যদের থেকে আলাদা। স্বামী অন্ত প্রাণ। খুব গভীর সম্পর্কে এরা বিশ্বাস করেন। দায়িত্ববান। সবরকম বিপদ থেকে সত্যিই ‘সিংহীর মত’ স্বামী-সন্তানকে আগলে রাখেন। আঁচও পড়তে দেন না।-জিনিউজ