মেইন ম্যেনু

এই বাড়িতেই ধোনি ফেলে এসেছেন ‘অমূল্য ধনসম্পদ’

ক্রিকেটীয় জীবনে সব ট্রপিরই স্বাদ পরখ করেছেন ভারত দলের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। তবে এবার চলতি মাসের ৩০ তারিখ মুক্তি পেতে চলেছে ধোনির বায়োপিক। আর ছবিটির দিকে তাকিয়ে রয়েছে গোটা ভারত।

কারণ ধোনি সম্পর্কে অজানা সব তথ্য জানা যাবে ছবিটিতে। বর্তমানে ধোনি প্রায় ছ’শ কোটি টাকার মালিক হলেও এক কালে কিছুই ছিল না তার। বর্তমানে সফলতম অধিনায়ক ধোনি তার ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই সফলতা পেয়ে আসছে। যেখানে হাত দিয়েছেন সেখানেই সোনা ফলাচ্ছেন।

এখনকার মতো বিলাসবহুল জীবনযাপন ছিল না ছেলেবেলায়। এখনকার মতো স্বর্গীয় অ্যাপার্টমেন্টে থাকার কথা সেই সময়ে কল্পনাও করতে পারতেন না ধোনি। অবশ্য হওয়াও সম্ভব নয়। সময় যত এগিয়েছে, ততই ধোনি উন্নতি করেছেন।

একের পর এক কঠিন পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হয়ে তবেই আজকের অবস্থান তৈরি করেছেন ধোনি। আজ তাঁর কাছে সব আছে। তাঁর জীবন নিয়ে ছবি তৈরি হচ্ছে। সেই ছবিতে ধোনির ‘জার্নি’টা তুলে ধরা হয়েছে। ছবিতে নায়কের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সুশান্ত সিংহ রাজপুত। রয়েছেন অনুপম খেরও। তিনি বেশ কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন টুইটারে। সেই ছবিগুলোতে মিলেমিশে রয়েছে ধোনির শৈশবের স্মৃতি। সেই স্মৃতি তো অমূল্য। বলতে গেলে, শৈশবের স্মৃতিআচ্ছন্ন সেই বাড়িতেই তো রয়েছে অজস্র ‘ধনভাণ্ডার’। আদিবাড়িতে গেলেই পাওয়া যাবে ছেলেবেলার ধোনিকে। এই বাড়ি থেকেই একদিন যাত্রা শুরু করেছিলেন আজকের মাহি।

ঐতিহাসিকদের কাছে সেই বাড়ির তো গুরুত্ব রয়েছে। ধোনির আদিবাড়ি মানুষকে নস্টালজিক করে তুলছে। ধোনির গোটা জীবন জানতে হলে, শিকড়ের খোঁজ তো করতেই হবে। রাঁচির সেই আদিবাড়ি অর্থাৎ ধোনির ছেলেবেলা কেটেছে যেখানে, সেই বাড়ির ছবিই অনুপম খের পোস্ট করেছেন নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে। ছবিগুলো দেখে ধোনি ভক্তরা টাইমমেশিনের সাহায্যে যেন পিছিয়ে যাচ্ছেন পুরনো দিনে। ফিরে যাচ্ছেন ধোনির ছেলেবেলায়। ফেলে আসা দিনের স্মৃতি সবসময়েই যে দামী।