মেইন ম্যেনু

এই সেই মেয়ে যে একদিন ধোনিকে চুমু খেয়েছিলেন, কিন্তু কোথায় আজ সে?

বেশ কয়েকবছর আগের কথা। ঘটনার কেন্দ্রস্থল কলকাতা। ভারতীয় ক্রিকেট দল সেই সময়ে ইডেন গার্ডেন্সে অনুশীলনে ব্যস্ত। সময়টা ২০০৭। ভারতীয় ক্রিকেটে তখনও পুরোদমে রয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, রাহুল দ্রাবিড়, সচিন তেন্ডুলকর। রয়েছেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনিও। সেই সময়কারই ঘটনা এটা। ইডেনে ভারতীয় দলের প্রস্তুতি চলাকালীন দু’ দিন ধরে প্রেসবক্সে বসেছিলেন শিউলি নামের একটি মেয়ে। বহরমপুরের বাসিন্দা শিউলি। মেয়েটি ধোনি-ভক্ত।

ভারতের দু’ দিন অনুশীলন চলাকালীন বেশ শান্তই ছিলেন শিউলি। কিন্তু শেষ দিন আর নিজেকে শান্ত রাখতে পারেননি শিউলি। ভারতের অনুশীলন তখন শেষ হয়ে গিয়েছে। ক্রিকেটাররা উঠে পড়েছেন টিম বাসে। আর তখনই ঘটল ঘটনাটা। শিউলি হাপুস নয়নে কাঁদছেন। তাঁর সামনে দাঁড়িয়ে নিরাপত্তারক্ষীরা। শিউলি ডেকেই চলেছেন ধোনিকে। হঠাৎই বাস থেকে নেমে এলেন ধোনি। আর সঙ্গে সঙ্গেই নিরাপত্তারক্ষীদের নজর এড়িয়ে শিউলি এসে ঝাঁপিয়ে পড়লেন ধোনির বুকে। জড়িয়ে ধরলেন এমএসকে। ধোনির বুকে চুমুও খেলেন। ঘটনার আকস্মিকতায় ধোনিও প্রথমটায় ঘাবড়ে যান। ধাতস্থ হয়ে ধোনি শিউলি বাঁধন ছাড়িয়ে উঠে গেলেন বাসে। তার পরের দিন সমস্ত কাগজে শিরোনামে চলে এলেন শিউলি।

সেই শিউলির কথা এখন আর কে মনে রাখেন! ধোনির একসময়ের প্রেমিকা লক্ষ্মী রাই জানিয়েছেন, ধোনি তাঁর জীবনে নাকি কাঁটা হয়ে বিঁধে রয়েছেন। লক্ষ্মী রাইদের কথা সবাই জানতে পারেন। কারণ তাঁরা তো সেলিব্রিটি। শিউলি তো আর সেই অর্থে সেলিব্রিটি নন। তিনি ধোনির বুকে ঝাঁপিয়ে পড়ায় দিনকয়েকের জন্য সবার মুখে মুখে ফিরেছিলেন। হয়তো তাঁকে অনেকেই গালমন্দ করেছেন সেই ঘটনার জন্য। পাড়াপড়শি হয়তো বলেছেন, বেহায়া মেয়ে। লজ্জাশরম নেই একটুও। ধোনি-এপিসোডের পরবর্তী ঘটনা আর জানে না মিডিয়া। খোঁজও নেয় না সেই শিউলির।

মাঝে পেরিয়ে গিয়েছে অনেকগুলো বছর। সেদিনের সেই শিউলি আজ হয়তো ঘরকন্না করছেন। অথবা চাকরি করছেন বড় কোনও সংস্থায়। কী অবস্থায় সেদিনের শিউলি আজ আছেন, তার খোঁজখবর কেউ রাখেন না। মিডিয়াও নয়।