মেইন ম্যেনু

এই ১০টা কাজে আপনি সবথেকে বেশি বিশ্রাম আর আরামে থাকবেন!

কি করলে সবচেয়ে বেশি বিশ্রাম হয়! আপনি জানেন… সম্প্রতি এই ওপরই একটি গবেষণা চালানো হয়। যাকে এখনও পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে বড় গবেষণা বলে ধরা হচ্ছে। এই গবেষণাতে প্রায় ১৮০০ মানুষ যোগ দেন। এই গবেষণাটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘দ্য রেস্ট টেস্ট’ বা ‘বিশ্রামের পরীক্ষা।’ ব্রিটেনের হাব্বার নামের একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান এই সমীক্ষাটি চালানো হয়।

এই সমীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল- কোন তিনটি কাজ করলে তাদের সবচেয়ে বেশি বিশ্রাম হচ্ছে বলে মনে করেন।

সমীক্ষার ফলাফলে নিচের ১০টি কাজের কথা বেরিয়ে এসেছে

১. পড়া

এই সমীক্ষার সবচেয়ে উপরে রয়েছে পড়া। ৫৮ শতাংশ লোক বলেছেন, বই পড়ার সময়ে তারা মনে করেন যে সবচেয়ে বেশি বিশ্রাম হচ্ছে।

২. প্রাকৃতিক পরিবেশে থাকা

অনেকে মনে করেন প্রাকৃতিক পরিবেশে থাকলে সেটা মন ও শরীরের ওপর থেরাপির মতো কাজ করে। পুরুষদের তুলনায় মহিলারা এটাকে বেশি বেছে নিয়েছেন।

৩. নিজের মতো করে থাকা

কোন বন্ধুর সাথে দেখা করা। কিংবা পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার বিষয়টি এসেছে তালিকার অনেক নিচে। এমনকি যারা বহির্মুখী তারাও নিজের মতো করে থাকার কথা বলেছেন। তারা মনে করেন অন্যদের সাথে থাকার চেয়ে একা একা নিজের মতো করে থাকা অনেক বেশি বিশ্রামের। বিশেষ করে মহিলারা এবং যাদের বয়স ৩০ এর নিচে তারাই এই অপশনটি বেশি বেছে নিয়েছে।

৪. গান শোনা

মহিলাদের তুলনায় পুরুষরা এটা বেশি পছন্দ করেন। তরুণদের মধ্যেও এই গান শোনার প্রবণতা বেশি।

৫. সুনির্দিষ্ট কিছু না করা

এটা একটা মজার ব্যাপার। প্রায় প্রত্যেক বয়স গ্রুপই এটা পছন্দ করেছে। তবে ৩১-৪৫ বছর বয়সীরা একটু কম পছন্দ করেছে। কেউ কেউ বলেছেন, কোন কিছু না করে বসে থাকা খুব কঠিন। মজার ব্যাপার হচ্ছে, ৯% মানুষ মনে করে তারা যদি কিছু না করে বসে থাকে তাহলে তারা নিজেদের অপরাধী বলে মনে করে।

৬. হাঁটা

লম্বা পথ ধরে হাঁটা অনেকের কাছেই কখনো বিশ্রামের নয়। কিন্তু অনেকের কাছে সেটা সেটা ঠিকই বিশ্রামের। কেউ কেউ মনে করেন, শারীর চর্চ্চার মাধ্যমে তারা তাদের মন পরিষ্কার করতে পারেন। এমনকি ৮% মানুষ মনে করেন যে তাদের কাছে দৌড়ানো আরো বেশি বিশ্রামের।

৭. চান করা

বয়সের সাথে সাথে এই চান করার আগ্রহ কমে যায়। দেখা গেছে চান করার ব্যাপারে ৬০ বছরেরও বেশি বয়সীদের চেয়ে ১৮-৩০ বছর বয়সী লোকদের আগ্রহ দ্বিগুণ।

৮. দিবাস্বপ্ন দেখা

মনকে ঘুরে বেড়াতে দেওয়া মানুষের স্বাস্থ্যের জন্যে কতোটা ভালো সেবিষয়ে মনোবিজ্ঞানীদের মধ্যে বহুদিন ধরে বিতর্ক হয়েছে। নেতিবাচক চিন্তাভাবনার কারণে মানুষের বিষণ্ণ হওয়া একটি স্বাভাবিক বিষয়। তবে কল্পনা বিলাসিতা মানুষের মনের একটি স্বাভাবিক প্রবণতা। এটি আপনার জন্যে ভালোও হতে পারে।

৯. টিভি দেখা

এবিষয়ে পুরুষদের তুলনায় নারীর আগ্রহ বেশি। বয়স্কদের তুলনায় এবিষয়ে আগ্রহ বেশি কম বয়সীদের। তবে বই পড়া থেকে এটি অনেক পিছিয়ে, সব বয়সী মানুষের কাছেই।

১০. মেডিটেশন

আধুনিক কালে এই মেডিটেশনের জনপ্রিয়তা বাড়ছে। দশটি কাজের তালিকায় উঠে এসেছে এটি। দেখা গেছে, বাগান করা, বন্ধুর সাথে আড্ডা মারা অথবা সেক্স করার চাইতেও এটি বেশি জনপ্রিয়। কিন্তু এক দশক আগেও কি মানুষের এই মেডিটেশনের আগ্রহ ছিলো?-কলকাতা