মেইন ম্যেনু

এই ৭ বদঅভ্যাস না ছাড়লে বিছানায় ঘনিষ্ঠ হবে না সঙ্গিনী

যৌন মিলনের সময় সব পুরুষই তাদের সব কৌশল ও দক্ষতা শয্যায় দেখাতে চান। কিন্তু তা সত্ত্বেও অনেক সময় পুরুষের অনেক ব্যবহার মহিলারা যৌন মিলনের সময় বিরক্ত হন। কারণগুলি এড়িয়া চলা ভাল। আসুন পড়ে নিন মিলনকালে ছেলেদের যে সব কাজে মেয়েরা বিরক্ত হয়।

১. বীর্যপাতের পূর্বে সঙ্গিনীকে সতর্ক না করা: বীর্যপাতের পূর্বে কেন সঙ্গিনীকে সতর্ক করতে হবে তা আশা করি বলে দিতে হবে না। কোনওরকম সতর্কতা ছাড়াই যে দম্পতিরা মিলিত হবেন, সেক্ষেত্রে পুরুষদের এই সবার আগে এই বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।

২. সঙ্গিনীকে চেপে ধরা: সঙ্গিনী যদি পুরুষের দেহে সোহাগ করতে থাকে, তখন তাকে বাধা দেবেন না। কারণ, আপনার সঙ্গিনী তখন Aggressive মুডে থাকবেন তখন তিনি চাইবেন আপনাকে Control করে আনন্দ পেতে।

৩. Porn video থেকে কিছু শেখার চেষ্টা করবেন না: মনে রাখবেন পর্ন ভিডিওতে যা দেখান হয় তার সবটাই সত্য নয়। বেশিরভাগ পর্ন ভিডিওতে যেসব মেয়েরা পারফর্ম করে তারা এক একজন পারফর্মার। সঙ্গিনীকে সেরকম ভাববেন না। বাস্তবের চিত্র অনেকাংশেই ভিন্ন।

৪. সঙ্গিনীর ছবি তোলা: বিভিন্ন সাইটে যেসব পর্ন দেখা যায় তার ৯০% হল গোপন ক্যামেরায় তোলা। যারা গোপন ক্যামেরায় এভাবে ছবি তোলে তাদের মানা করলে কোনও লাভ হবে না। তারা এমনটি করবেই। তবে অনেক ছেলে আছে যারা সঙ্গিনীকে দেখিয়েই ছবি তোলে বা ভিডিও শ্যুট করে। এরকম অবস্থায় আপনার সঙ্গিনী যদি রাজি না হয় তবে তাকে ছবি তোলার অনুরোধ করতে যাবেন না।

৫. সঙ্গিনীর সঙ্গে একঘেয়ে স্টাইলে সেক্স: অনেক ছেলেই যতবার সঙ্গিনীর সঙ্গে মিলিত হয় তারা একই রকম ভাবে সেক্স করে এর মজাটাই নষ্ট করে ফেলে। তাই কিছুদিন পরপরই নতুন কিছু চেষ্টা করতে হবে। যেমন নতুন নতুন পজিশনে সেক্স করা।

৬. এলোমেলো ভাবে সঙ্গিনীকে ‘লাভ বাইটস’ দেওয়া: সেক্সের সময় মেয়েরা হাল্কা কামড় খেতে পছন্দ করে। লাভ বাইট মানে শুধু কামড়ই নয়। চামড়ার কোন স্থানে বেশ কিছুক্ষন ধরে একনাগারে চুষতে থাকলে, সেখানে গাঢ় লাল একটা দাগ পড়ে যায়, ওটাকেই লাভ বাইটস বলে। বিশেষ করে যারা ফর্সা তাদের এই দাগটা বেশি ফুটে থাকে। এই দাগ প্রায় একদিন ধরে ফুটে থাকে। তাই এমনকোন যায়গায় এভাবে চুষবেন না যেখানে এই দাগ স্পষ্ট দেখা যায়। যেমন, গলা, গাল ইত্যাদি। কারন এই দাগ মেয়েটির জন্য পরে লজ্জার কারণ হবে।

৭. বীর্যপাত হয়ে গেলেই সঙ্গিনীর কাছ থেকে সরে যাওয়া: এই ভুলটা আমাদের দেশের ৮০% ছেলেরাই করে থাকে। ছেলে ও মেয়ে উভয়েরই অর্গাজম যদি একসঙ্গেও হয় তবুও মেয়েরা চায় সেক্স শেষ হলে ছেলেরা আরও কিছুক্ষন তাকে আদর করুক। তাই বীর্যপাত হয়ে যাওয়ার পরেও সঙ্গিনীকে বেশ কিছুক্ষন সময় দিতে হবে।