মেইন ম্যেনু

একইসাথে সুন্দরী এবং দুর্দান্ত মেধাবী ৬ বিখ্যাত নারী

সুন্দরীরা নাকি বুদ্ধিমতী হন না। আবার যারা বুদ্ধিমতী তারা নাকি দেখতে তেমন আকর্ষণীয় হন না। এমন ধারণা ভুল প্রমাণিত হয়েছে বহুবার। অনেক নারী নিজের যোগ্যতা, মেধা দিয়ে প্রমাণ করেছেন সৌন্দর্যের সাথে বুদ্ধির কোন সম্পর্ক নেই। বুদ্ধি হলো চর্চার ব্যাপার, যিনি চরম সুন্দরী মেধার চর্চায়ও তিনিই হতে পারেন অদ্বিতীয়া। আসুন এমন কয়েকজন নারী ব্যাক্তিত্বের কথা জেনে নেই যারা সৌন্দর্য্য আর মেধায় সমানতালে ছিলেন ঈর্ষণীয়।

১। হেডি লামার
৩০-৪০ শতকের তারকা হেডি লামার। তাকে সবসময়ই এমন চরিত্রে অভিনয় করতে দেয়া হত যেগুলোতে সৌন্দর্যই আসল। তিনি অভিনয় কতটা জানেন বা দক্ষ কিনা তার বিচার কেউ করতেন না। এই অবমূল্যায়ণ তাকে দমিয়ে রাখতে পারে নি। তিনি স্মরনীয় হয়ে আছেন U.S. spread spectrum technology তে অবদানের জন্য। তার এই টেকনোলজি ভবিষ্যতে কাজে লাগানো হয় ওয়াইফাই ইন্টারনেট কানেকশান এবং ওয়্যারলেস মোবাইল ফোনের জন্য।

২।ফেমকে জানসেন
‘এক্স ম্যান’ মুভিতে ‘জেন গ্রে’ চরিত্রে, ‘গোল্ডেন আই’ এ খলনায়িকা চরিত্রে দূর্দান্ত অভিনয় করেছেন এই অভিনয়শিল্পী। বিশেষ করে ‘গোল্ডেন আই’ নামক বন্ড মুভিতে যেখানে তিনি পুরুষ প্রতিপক্ষকে মেরে ফেলছেন এবং ধ্বংস করে চলেছেন সেই দৃশ্যটি খুবই জনপ্রিয় হয়। শুধু সৌন্দর্য নয়, অভিনয়ে তিনি দক্ষতার সাথে তুলে ধরেছেন নিজেকে। ব্যাক্তি জীবনে তিনি কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘লেখালেখি এবং সাহিত্য’ বিষয়ে এবং পরবর্তীতে আমস্টারডাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে পড়াশোনা করেন।

৩।এলিজাবেথ সু
‘হলো ম্যান’, ‘লিভিং লাস ভেগাস’, ‘দ্যা ক্যারাটে কিড’ মুভিতে অভিনয় করে ইতিমধ্যেই জনপ্রিয় এলিজাবেথ। অন্য নারী সহশিল্পীদের মত তিনি কখনোই নিজের শারীরিক গঠন বা সৌন্দর্যকে ব্যবহার করে কারো সাথে বন্ধুত্ব করতে যান না। বরং নিজের মিষ্টি ব্যবহারই তাকে সবার বন্ধু করে তোলে। তিনি ওয়েলস ল’ কলেজ এবং হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা করেন। অভিনয়ে মনোযোগ দিতে একবার পড়াশোনা ছেড়ে দিলেও ১৫ বছর পর আবার শুরু করেন।

৪। ড. ভিক্টোরিয়া জেড রক
ভিক্টোরিয়া জেড রক তার এডাল্ট ম্যাগাজিন ‘প্লে বয়’ এর জন্য বিখ্যাত। কিন্ত অনেকেই জানেন না তিনি এতই মেধাবী ছিলেন যে স্কুল শেষ না করেই ভর্তি হয়ে যান কলেজে। তিনি ওয়েস্ট চেসটার বিশ্ববিদ্যালয়, পেন্সিল্ভেনিয়া থেকে মাত্র ১৮ বছর বয়সে ব্যাচেলর ডিগ্রী নেন। ভিলোনা ল’ স্কুল এবং ড্রেক্সেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি ল’ ডিগ্রী এবং মনোবিজ্ঞানে পি এইচ ডি করেন।

৫। কেট বেকিনসেল
ক্লিক, আন্ডার ওয়ার্ল্ড, পার্ল হার্বার মুভিতে অভিনয়ের জন্য তিনি বহুল পরিচিত। তিনি ভ্যাম্পায়ার মুভিগুলোতে আলাদা মাত্রা যোগ করেছেন। তিনি এতই সুন্দরী যে সবসময়ই যৌন আবেদনময়ী হিসেবে র‍্যাঙ্কে থাকেন। পাশাপাশি তিনি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে রাশান এবং জার্মান সাহিত্যের উপর পড়াশোনা করেছেন। ডব্লিও এইচ স্মিথ ইয়ং রাইটার প্রতিযোগিতায় কিশোর বয়সেই নিজের লেখা কবিতার জন্য পদক জেতেন।

। ঐশ্বরিয়া রাই
তিনি আমাদের সবার পরিচিত। তার জনপ্রিয় মুভি অগণিত। ১৯৯৪ সালে ঐশ্বরিয়া বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগিতায় মুকুট জয় করেন। সর্বোকালের সেরা সুন্দরী হিসেবে তাকে নিয়ে আলোচনা হয় প্রচুর। কিন্তু শুধু সুন্দরীই নন, ভীষন মেধাবীও তিনি। ইন্ডিয়ার প্রেস্টিজিয়াস রুপারেল কলেজ থেকে তিনি সাড়া ভারতে প্রথম হয়ে পাশ করেন। তিনি ইংরেজি, তামিল, মারাঠি সহ বিভিন্ন ভাষায় পারদর্শী।