মেইন ম্যেনু

একটি বলে দৌড়ে সর্বোচ্চ কত রান হয়েছিল জানেন?

ক্রিকেটে একটি বৈধ ডেলিভারিতে সর্বোচ্চ কত রান নেওয়া যায়? বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই এর উত্তর হবে, ছয়। ওভার বাউন্ডারির চেয়ে বেশি রান একটি বলে যে হওয়া সম্ভব নয়। ধারাভাষ্যকাররাও তাই মাঝেমধ্যেই ওভার বাউন্ডারিকে ‘ম্যাক্সিমাম’ আখ্যা দিয়ে থাকেন। কিন্তু একটি বৈধ ডেলিভারিতে ব্যাটসম্যানরা দৌড়ে সর্বোচ্চ কত রান নিতে পারেন? এ ক্ষেত্রে রয়েছে বেশ কিছু ধোঁয়াশা।

ক্রিকেটের আইন অনুযায়ী, বল যত ক্ষণ খেলার মধ্যে থাকবে, তত ক্ষণ ব্যাটসম্যানরা দৌড়ে যত খুশি রান নিতে পারেন। এ ক্ষেত্রে সবচেয়ে কাছাকাছির ইতিহাস বলছে ২০০৮ সালে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে এক বলে ৮ রান নিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস। চার রান নিয়েছিলেন দৌড়ে, আর বাকি চার রান এসেছিল ওভার থ্রো থেকে। তবে সাইমন্ডস একা নন। ১৯২৮-২৯ মরসুমে ইংল্যান্ডের প্যাটি হেনড্রেন এবং ১৯৮০-৮১ মরসুমে নিউজিল্যান্ডের জন রাইটও একই ভাবে এক বলে আট রান নিয়েছিলন। কিন্তু এর কোনওটিই রেকর্ড নয়।

গিনেজ বুক বলছে একটি বৈধ বলে সর্বোচ্চ রান নেওয়ার রেকর্ডটি রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার একটি ক্লাবের। ১৯৯২ সালে ম্যাচ চলাকালীন মাঠের লম্বা ঘাসে বল হারিয়ে গেলে ব্যাটসম্যানরা শুধুমাত্র দৌড়ে ১৭ রান নেন।
এক বলে সর্বোচ্চ রানের ক্ষেত্রে বহু বছরের পুরনো একটি গল্প প্রচলিত আছে। ১৮৯৪ সালে অস্ট্রেলিয়ান লিগে ভিক্টোরিয়ার একটি ম্যাচে ব্যাটসম্যানের শটে বল মাঠের ভিতরে থাকা একটি গাছে উঠে যায়।

ফিল্ডাররা বল হারিয়ে যাওয়ার আবেদন করলে আম্পায়াররা তা নাকচ করে দেন কারণ বলটি দেখা যাচ্ছিল। কী ভাবে বল পাড়া যায় তা নিয়ে যখন ফিল্ডাররা ব্যস্ত, ব্যাটসম্যানরা তখন রান নিতে ব্যস্ত। বল পাড়তে খোঁজ পড়ল কুড়ুলের। তা-ও মিলল না। তা হলে উপায়? ব্যাটসম্যানরা যে দৌড়েই চলেছে! অবশেষে একটি রাইফেল জোগাড় করা গেল। বেশ কয়েকটি গুলি খরচ করে নামানো হল বলটিকে।

কিন্তু তত ক্ষণে স্কোরবোর্ডে নজর পড়তে মাথায় হাত। ইতিমধ্যেই যে ২৮৬ রান নিয়ে ফেলেছেন দুই ব্যাটসম্যান! খবরটি প্রকাশিত হয়েছিল একটি ইংরেজি গেজেটে। কিন্তু এত পুরনো খবরের সমর্থনে আর কোনও প্রমাণ না থাকায় তা গিনেজ বুকে স্থান পায়নি।