মেইন ম্যেনু

একটি মোবাইলের জন্য স্কুলছাত্রকে হত্যা

হবিগঞ্জে একটি মোবাইল ফোনের জন্য সপ্তম শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। নৃশংস এ হত্যাকাণ্ডটি ঘটিয়েছে প্রতিবেশী এক যুবক। শুক্রবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, হবিগঞ্জ সদর উপজেলার রাজিউড়া ইউনিয়নের বালিকান্দি গ্রামের সৌদি প্রবাসী নয়ন মিয়া চৌধুরীর ছেলে উচাইল উচ্চবিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র লায়েছ চৌধুরী (১৪) ও তার বন্ধু সাইফুল খেলা শেষে হাওর দিয়ে বাড়ি ফিরছিল। পথিমধ্যে প্রতিবেশী মারাজ মিয়ার ছেলে রিপন মিয়া (২৫) তাদেরকে আটক করে।

এ সময় রিপন লায়েছের কাছ থেকে মোবাইল ফোন জেরপূর্বক নেয়ার চেষ্ঠা করে। একপর্যায়ে লায়েছের বন্ধু সাইফুল পালিয়ে এসে বাড়িতে তার পরিবারকে বিষয়টি অবগত করে। এরই মাঝে লায়েছ মেবাইল ফোনটি না দেয়ায় ঘাতক রিপন তাকে গামছা দিয়ে হাত-পা বেঁধে উপর্যপুরি ছুরিকাঘাতে হত্যা করে পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে লায়েছের ক্ষত-বিক্ষত মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়।

পরে সদর থানার ওসি মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে রাত ১০টার দিকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পারভীন আক্তার (৩০) নামে এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ।

হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত অন্যদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’