মেইন ম্যেনু

একটি ম্যাসেজের অপেক্ষা…

‘সরি, আ’ম বিজি। কল ব্যাক লেটার।’ জেদ্দায় কর্মরত হজ কাউন্সিলর আজিজুর রহমানের কাছে এমন একটি ম্যাসেজের অপেক্ষাতেই প্রহর গুণতে হচ্ছে দু’দিন থেকে।

মক্কার মিনায় পদদলিত হয়ে ৭৬৯ জন হাজি মারা গেছেন, আহত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে আছেন সহস্রাধিক হাজি। তবে শনিবার থেকে মৃত হাজিদের মৃতদেহ সনাক্তের কাজ শুরু করলেও এখনো পর্যন্ত কতজন বাংলাদেশি হাজি নিহত হয়েছেন এর সঠিক কোন তথ্য দিতে পারছেন না বাংলাদেশ দূতাবাস। নিহত এবং নিখোঁজদের ব্যাপারে জানার জন্য বারবার কর্মরত হজ কাউন্সিলর আজিজুর রহমানকে কল করলেও সেদিক থেকে কোন সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না।

সবকিছুর বিবেচনায় ধারণা করা হচ্ছে, এখন পর্যন্ত শতাধিক হাজি নিখোঁজ রয়েছে। তবে এরা জীবিত আছেন কিনা এমন কোনো তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না।

এদিকে নিখোঁজ থাকা বাংলাদেশি হাজিদের পরিবার হাজিদের খোঁজ-খবর না পেয়ে সৌদি আরবের বাংলাদেশ দূতাবাসের অবহেলাকে দায়ী করছেন।

রবিন নামে নিখোঁজ এক হাজির স্বজন বলেন, ‘দূতাবাসের এমন অবহেলা নতুন কিছু না। এদের সাথে যোগাযোগ করার জন্য নম্বর ঠিকই দেয়া হয়েছে, তবে সেটা কেবল মানুষকে বোকা বানানোর জন্য। এদের দেয়া একটি নম্বরেও কল যাচ্ছে না। এটি একটি দেশের জন্য কখনো ভালো লক্ষণ হতে পারেনা।

রবিন আরো বলেন, ‘পবিত্র হজ করতে এসে অনেক হাজি নিহত হয়েছেন অনেকে নিখোঁজ রয়েছেন। তবে এখানকার স্থানীয় একটি পত্রিকা বাংলাদেশি একজন হাজি নিহত এমন সংবাদ প্রকাশ করেছেন। তারপরও চুপ বাংলাদেশ দূতাবাস।

রবিন প্রশ্ন রেখেছেন, ‘যারা এখানে প্রবাসে আছি, এসবের মানে কি আমরা ধরে নিবো আমাদের দেখার কেউ নেই?’