মেইন ম্যেনু

একটি হুইল চেয়ারের অভাবে রমজান আলীর দুর্দশা

ধামইরহাট উপজেলার কোকিল গ্রামের মৃত শাহাজান আলী ছেলে রমজান আলী বয়স ৮৩ বছর। প্রবীন রমজান আলী এখন হামাগুড়ি দিয়ে অন্যের দ্বারে-দ্বারে ভিক্ষা করছে। শশীরে শক্তি থাকতে তিনি নিয়মিত দিনমজুরের কাজ করতেন। রমজান আলী ৩ বছর পূর্বে উপজেলার হরতিকী ডাঙ্গা গ্রামের ইছাহাকের ঘরের টিনের ছাউনির কাজ করতে গিয়ে দড়ি ছিঁড়ে পড়ে কোমর ভেঙ্গে যায়। দরীদ্র রমজান আলী টাকার অভাবে হাতুড়ে ডাক্তার ও গ্রাম্য কবিরাজের চিকিৎসায় কোন রকম সেরে উঠলেও মাজা-কোমর সোজা করতে না পেরে কর্মক্ষমতা হারিয়ে ফেলে পরিবারে বোঝা হয়েছেন। রমজান আলী উন্নত চিকিৎসার অভাবে বাঁকা কোমরে উপুর হয়ে ভিক্ষাবৃত্তি ছাড়া তার সামনে উপার্জনের আর কোন পথ খোলা নেই। উপার্জনের শক্তি-সামর্থ্য হারিয়েছেন বলে ছেলে মেয়েরা প্রবীন রমজান আলীর খোজ-খবর নেয়ার প্রয়োজন মনে করেনা। সমাজের বিত্তবানদের কাছে ১টি হুইল চেয়ারের অবেদন করেও কোন লাভ হয়নি। অবশেষে এনজিও ওয়ার্ল্ড ভিশন, ধামইরহাট এডিপির নিকট ১টি হুইল চেয়ারের আবেদন করেছেন বলে তিনি জানান। তার বড় আশা এবার ১টি চেয়ার পাবেন। আশায় বুক বেঁধে প্রবীন অসহায় রমজান আলী মিনতির সহিত বলেন, “মোক এটা হুইল চেয়ার ব্যবস্থা করে দেও বাবা, আল্লাহ ভাল করবে। উপুড় হয়ে চলাফেরা খুব কষ্ট।”
গত ১৫ জুন সারা বিশ্বে পালিত হল “বিশ্ব প্রবীন নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস।” কিন্তু পরিবার-পরিজনের অবহেলার শিকার রমজান আলী দিবসটি সম্পর্কে কিছুই জানেন না। তথ্য মতে দেশের ৮ ভাগ মানুষ প্রবীন। হেল্প এইজ ইন্টারন্যাশনাল ও অক্্রফ্যাম এর সহায়তায় প্রবীনদের নিয়ে নওগাঁ জেলায় কাজ করছে বরেন্দ্র ভুমি সমাজ উন্নয়ন সংস্থা (বিএসডিও)। এমন কথা শুনে তাঁর বুকে আশার সঞ্চার হলো। তাঁর ভাষায় “ দেশোত ভাল মানুষ আছে বা, ওমার কাছে গেলে এবার মুই হুইল চেয়ারটা পামু। দুক্কুটা ফুরাবে।” এরকম হাজারো রমজান আলী আছে যারা যে কোন কারণে উপার্জন ক্ষমতা হারিয়ে নিজ সংসারের বোঝা হয়ে দাঁড়িছেন। স্ত্রী-সন্তান পরিজনের নিকট অবহেলা-অবজ্ঞার শিকার হওয়া প্রবীনদের প্রত্যাশা ১৫ জুন শুধু দিবস পালনে নয় সরকারী সংস্থা ও এনজিও গুলো চোখ মেলে দুর্ধাশাগ্রস্থ প্রবীনদের পাশে দাঁড়াবে। জীবনের শেষ কালে পারিবারীক নির্যাতন থেকে চোখের পানির পরিবর্তে প্রবীনদের স্বাভাবিক নিরাপত্তার ব্যবস্থা করবে। প্রকৃত অর্থে প্রবীনদের মুল্যবান অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে পারলে তাঁরা পরিবার বা সমাজের বোঝা নয় বরং অমুল্য সম্পদ।