মেইন ম্যেনু

একদিনেই বন্ধ ভারতের একমাত্র ডুবন্ত রেস্তোরাঁ

উদ্বোধনের একদিনের মধ্যেই বন্ধ হয়ে গেছে ভারতের প্রথম পানির নিচের রেস্তোরাঁ ‘দ্য পোসেইডন’। আমদাবাদ মিউনিসিপাল কর্পোরেশন জানায়, রেস্তোরাঁ পরিচালনার জন্য প্রয়োজনীয় কোনও অনুমতি নেয়নি কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়াও দমকল এবং জরুরি বিভাগ থেকেও প্রয়োজনীয় ছাড়াপত্র নেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ।

আমদাবাদ ডেপুটি মিউনিসাপাল কমিশনার দেবাঙ্গ দেশাই বলেন, ‘রেস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষকে একটি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এতে জানানো হয়েছে অনির্দিষ্টকালের জন্য রেস্তোরাঁ সিলগালা করা হচ্ছে। যত দিন প্রয়োজনীয় অনুমোদন না নেওয়া হচ্ছে, তত দিন রেস্তোরাঁ খোলা যাবে না।’

মাটি থেকে ২০ ফুট নিচে প্রায় দেড় লাখ লিটার পানির অ্যাকুরিয়াম তৈরি করা হয়েছে রেস্তোরাঁটির ঠিক ওপরে। ফলে কোনও দুর্ঘটনাবশত যদি কাঁচের ট্যাঙ্কটি ফেটে যায়, তবে বড় দুর্ঘটনার সম্ভাবনা রয়েছে।

আমদাবাদের প্রধান অগ্নি নির্বাপক কর্মকর্তা এম এফ দস্তুর জানিয়েছেন, খবরের কাগজ পড়ে তিনি এই রেস্তোরাঁর ব্যাপারে জানতে পেরেছেন। তিনি কখনও সেখানে যাননি। ফলে অনুমোদন দেওয়ার প্রশ্নই উঠছে না। রেস্তোরাঁর ওপর একটি বড় অ্যাকুরিয়াম রয়েছে। যদি হঠাৎ কোনও দুর্ঘটনা ঘটে যায় তবে সেখান থেকে বেরনোর কী ব্যবস্থা রয়েছে সে সব কিছুই জানা নেই। আমরা দ্য পোসেইডনকে কোনও অনুমোদন দিইনি।

জানা গিয়েছে, অ্যাকুরিয়াম থেকে একটি জায়গায় পানি বেরিয়ে আসছিল। ফলে কোনও ঝুঁকি না নিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয় রেস্তোরাঁ।

মালিক ভারত ভাট যদিও অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘পানি লিক করেনি। আসলে প্রথন দিনেই আমরা এত ভালো সাড়া পাব তা ভাবিনি। সারা দিন ধরে আসন বুক করার জন্য ফোন আসে। তবে তখনও কিছু কাজ অসমাপ্ত ছিল। তাই ঠিক করি একেবারে কাজ শেষ করে তবেই রেস্তোরাঁ খুলব।’