মেইন ম্যেনু

একবছর আগেই বিপাশাকে বিয়ে করতে চেয়েছিল কারণ

সম্ভবত এই মুহূর্তে বিশে^র সবচেয়ে সুখী মানুষ বিপাশা বাসু এবং কারণ সিং গ্রোভার। কিন্তু সুন্দর এই সময়টি খুব সহজেই তাদের জীবনে ধরা দেয়নি। এজন্য পেরোতে হয়েছে অনেক চড়াই-উতরাই। এমনকি দুই পরিবারও এই বিয়েতে সম্মত ছিল না।

‘অ্যালন’ সিনেমায় একসঙ্গে অভিনয়ের সূত্রে মন দেয়া-নেয়া এই দুই তারকার। তখনই তারা একে অপরকে বিয়ে করবে বলে মনস্থির করে। মুম্বাই মিররের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রেমপর্বের এক বছর পরই কারণ বিয়ে করতে চেয়েছিল বিপাশাকে। বঙ্গ বিউটির সামনে হাঁটু গেড়ে বসে বিয়ের প্রস্তাবও দিয়েছিলেন। কিন্তু ৩৭ বছর বয়সী অভিনেত্রী কারণ এবং জেনিফার উইঙ্কলেটের বিচ্ছেদের জন্য এক বছর ধরে অত্যন্ত ধৈর্য্যরে সঙ্গে অপেক্ষা করছিলেন। অবশেষে গত মাসে পাকাপাকি ভাবে কারণের সঙ্গে তার সাবেক স্ত্রী অভিনেত্রী জেনিফারের বিচ্ছেদ হয়।

বিচ্ছেদ তো হলো, এবার বাধা হয়ে দাঁড়ায় বিপাশার বাবা হীরক বাসু। কারণের আর্থিক অস্বচ্ছলতা এবং উপার্জনের স্থিতিশীলতা নেই, এমন ছেলের হাতে কন্যাকে তুলে দিকে চাননি হীরক। এছাড়া অতীতে দুবার বিয়ে হয়েছিল কারণের, কিন্তু কোন সংসারই দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। এসব নিয়ে আপত্তি ছিল হীরকের ।

২০১৫ সালের শুরুর দিকে কারণের বরাত দিয়ে তাঁর এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু জানায়, ‘আমি বিপাশাকে বিয়ে করতে চাই। তবে ওর বাবা এমনকী ওর মা দীপা সিংও এই সম্পর্কে রাজি নয়।’

কারণের সেই ঘনিষ্ঠ বন্ধু আরও জানান, এরপর বিপাশা এবং কারণ একসঙ্গে মুম্বাইয়ের খার অ্যাপার্টমেন্টে হীরক বাসুর আর্শীবাদ নিতে আসলেও, তিনি মুখ ফিরিয়ে নেন।

এরও প্রায় এক বছর পর কারণ এবং বিপাশার সম্পর্ক মেনে নিল দুই পরিবার। অবশেষে আগামী ৩০ এপ্রিল বাঙালী রীতিতে ছাদনা তলায় যাচ্ছেন অভিনেত্রী বিপাশা এবং অভিনেতা কারণ। এটি বিপাশার প্রথম বিয়ে হলেও, কারণের এর আগে দুবার বিয়ে হয়। অপরদিকে অভিনেতা দিনো মরিয়া, জন আব্রাহাম এবং হরমন বেওয়াজার সঙ্গে বিপাশার প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে বলে জানা যায়।