মেইন ম্যেনু

“একমাস গ্রামে থেকে যা দেখেছি যা শিখেছি” শীর্ষক অভিজ্ঞতা বিনিময় সভা

বিধান মুখার্জী, গণবিশ্ববিদ্যালয় (সাভার) থেকে: “একমাস গ্রামে থেকে যা দেখেছি যা শিখেছি” শীর্ষক এক অভিজ্ঞতা বিনিময় সভা ১২ মার্চ, ২০১৬ শনিবার সকাল ১০ টায় গণবিশ্ববিদ্যালয় অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়।

গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস ২১ তম ব্যাচ ও গণবিশ্ববিদ্যালয়ের ফিজিওথেরোপী ২৯ তম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা চারটি গ্রুপে একমাসব্যাপী গ্রামীণ ওরিয়েন্টেশনকালীন অর্জিত অভিজ্ঞতা উপস্থাপন করেন ।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্বব্যাংকের সিনিয়র হেলথ্স্পেশালিস্ট ডা. বুসরাবিনতে আলম ও বিশেষ অতিথি হিসেবে বিশ্বস্বাস্থ্যসংস্থার হেলথসিস্টেমের টিম লিডার ডা. ভেলেরিয়া ডিঅলি ভেরিয়াক্রুজ । এবং প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট অথনীতিবিদ ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ড. হোসেন জিল্লুর রহমান ।

প্রধান অতিথি ডা. বুসরাবিনতে আলম প্রথমেই দেশের পলিসিমেকারদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, ” এই প্রোগ্রাম শুধু শিক্ষার্থীদের জন্য নয় , আমাদের দেশের প্রতিটি মানুষের জন্য , যাদের প্রত্যেকের স্বাস্থ্যসেবা পাবার অধিকার রয়েছে । তারা মেডিকেল জীবনের শুরু তে এমন একটি সম্পর্ক স্থাপন করে এসেছে যা আমি ব্যাক্তিগত ভাবে সরকারি মেডিকেল থেকে পাস করার পর ও পারিনি ।

কারন আমরা নিজের প্রয়োজনে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যেতাম । সাধারণ মানুষের প্রয়োজন ও বাস্তবতা বুঝতে যেতাম না । ফলে বড় ডাক্তার হওয়ার পর তারা যখন আমদের কাছে আসতো , আমরা শুধু রোগের চিকিৎসা করতাম । একজন মানুষের না । আমাদের রোগের চিকিৎসক নয়, মানুষের চিকিৎসক হতে হবে ।”

ড. হোসেন জিল্লুর রহমান তার বক্তব্যে বলেন, “ডাক্তার-রোগী সম্পর্কে দুর্বলতা সৃষ্টির কারনে আজ স্বাস্থ্যব্যবস্থা দূর্বল হয়ে পড়েছে । মানুষের আস্থা কমেছে । খুব দ্রুত সম্পর্কে উন্নতি দরকার ।” তিনি প্রস্তাব করেন যেন প্রতি বছর মাসব্যাপী এই প্রোগ্রামে কিছু গবেষণার বিষয় রাখা হয় । কারন হিসেবে বলেন , “সাধারণ মানুষের এতোটা কাছাকাছি সবাই যেতে পারেনা যতটা তোমরা ডাক্তার জীবনের শুরুতে গিয়েছো ।শুধু চিকিৎসা সেবা দেওয়ানা, সেবা সম্পর্কে জানানো ও স্বাস্থ্যসেবার অন্তর্ভুক্ত ।”

বিশেষ অতিথি ডা.অলিভেরিয়া ক্রুজ বলেন, ” সফলতা কখনোই পাঠ্যবই নির্ভর নয় , সফলতা সম্পর্ক উন্নয়নের উপর নির্ভরশীল ।” তিনি শিক্ষার্থীদের একমাসের কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন , “তোমরা অন্যদের থেকে আলাদা ।কারন তোমাদের মেডিকেল জীবন শুরু হলো রোগীদের সাথে , গ্রামীন সাধারণ মানুষের সাথে সম্পর্ক স্থাপনের মাধ্যমে । এবং এইপথচলা তোমাদের জীবনের শেষপর্যন্ত চলবে । ”

গণবিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মেসবাহউদ্দিন আহমেদ – এরসভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী সহ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টিবৃন্দ ,বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান ও শিক্ষক-শিক্ষার্থী উপস্হিত ছিলেন ।

উল্লেখ্য গত পহেলা ফেব্রুয়ারী থেকে এমবিবিএস ২১তম ব্যাচ ও ফিজিওথেরোপী ২৯তম ব্যাচের প্রায় ১৫০ জন শিক্ষার্থী তিনটি ভাগে একমাসের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে সোনাগাজী ,ভোলা ,দিনাজপুরের গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে অবস্থান করে ।