মেইন ম্যেনু

একলা সময় কাটানো যে কারণে আপনার জন্য ভালো

মানুষ সবসময়েই অনেকের সাথে মিলেমিশে বাস করতে চায়। চায় নিজের আপনজনদের পাশে পেতে, তাদের সাথে মনের কথা বিনিময় করতে। একলা না হতে। কিন্তু আপনি কি জানেন একলা কিছু সময় কাটানোও আপনার জীবনে ঠিক ততটাই জরুরী, যতটা জরুরী অন্যদেরকে পাশে পাওয়া? গবেষণায় জানা যায় যে, জীবনে মানুষের একলা সময় কাটানোরও দরকার আছে। কারণ এই একলা কাটানো সময়গুলোই মানুষকে করে তোলে সাধারণের চাইতে আরো একটু বেশি আলাদা, আরো সম্ভাবনাময়। আসুন দেখে আসি খানিকটা সময় একলা কাটানো কি করে আমাদের মেধাকে আরো বেশি বিকশিত হতে সাহায্য করে।

১. কর্মক্ষম ও সৃজনশীল হতে সাহায্য করে

অন্যদের সাথে কাজ করলে বা অন্যদের সাথে থাকলে আপনি কিছুটা তাদের ওপর নির্ভরশীল হয়েই পড়েন। কী করবেন, কখন করবেন, কীভাবে করবেন- এ সবকিছুই অন্যদের পরামর্শের ভিত্তিতে খানিকটা হলেও করার চেষ্টা করে আপনার অবচেতন মন। হয়তো সেই পরামর্শটি একই নিয়মকে মেনে চলা নিয়ে। কিন্তু একলা থাকলে আপনাকে অন্যে কথা চিন্তা করতে হবেনা। সেসময় আপনি কি করবেন না করবেন তার পুরোটা ভার থাকবে আপনার ওপর। ফলে নতুন নতুন উপায় সৃষ্টি করার সুযোগ পাবে আপনার মস্তিষ্ক। আরো বেশি কর্মক্ষম হবার সুযোগ পাবে (লাইফহ্যাক)।

২. পরিশ্রমী করে তোলে

একটি কাজ যখন অনেকে করা হয় তখন নিজের পুরোটা চেষ্টা আপনি স্বভাবতই করেন না। খানিকটা হলেও অন্যদের ওপর ছেড়ে দেন কাজের ভার। আর কাজের বাইরে গেলেও এ কথা সত্যি যে, আপনার কাজের সময় পাশে যদি কেউ মুভি দেখে বা গল্প করে, আপনি পুরোপরি মনোযোগ দিতে পারবেন না কাজে। দিতে ইচ্ছেও করবেনা। কিন্তু কোন কাজ যদি পুরোটাই একা করতে হয় আপনাকে কিংবা আশেপাশে যদি বিরক্ত করার কেউ না থাকে তাহলে পুরোপুরি মনযোগ দিয়ে আর পরিশ্রমকে কাজে লাগিয়ে কাজটা সম্পন্ন করতে পারবেন আপনি (হাফিংটন পোস্ট)।

৩. কাজের উত্সাহ আর উদ্যম বাড়ায়

নিজেকে যদি একটি পাত্র মনে করেন আপনি যেখানে উদ্যম আর শক্তি পূর্ণ রয়েছে, তাহলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা মানুষের সাথে কাটানো সময়গুলোকে আপনি ধরতে পারেন এই উদ্যমের খানিকটা করে নিয়ে যাওয়ার মাধ্যম হিসেবে। যেগুলো প্রতিবারই একটু একটু করে আপনার শক্তি আর উদ্যমগুলো নিয়ে নিচ্ছে আর ফাঁকা করে দিচ্ছে পাত্রটিকে। এ সমস্যাটিতে সবচাইতে বেশি ভুগে থাকেন অন্তর্মুখী মানুষেরা। আর তাই মন ও মস্তিষ্ককে পুরোপুরি চাঙা করে তুলে নিজের ভেতরের শক্তি আর উদ্যমের পাত্রটিকে পূর্ণ করে তুলতে দরকার পড়ে কিছু একলা সময়ের (সাইকোলজি টুডে)।

৪. সম্পর্কগুলোকে শক্তিশালী করে

একজন মানুষের চারপাশে নানারকম সম্পর্ক ঘিরে থাকে। প্রতিনিয়ত সেই সম্পর্কগুলোকে টিকিয়ে রাখতে রাখতে একটা সময় ক্লান্ত হয়ে পড়ে মানুষ। চায় কিছুটা বিশ্রাম। আর বাস্তবিকভাবেই প্রতিটি সম্পর্ককে নিয়ে ভাবার জন্যে কিছু সময় আমাদের রাখা দরকার। জানা দরকার ঠিক কি চাইছি আমরা সেটা থেকে। হতে পারে সেটা নিজেকে জানার জন্যে কিংবা অন্যদের, কিছুটা একলা সময় মানুষের কাটানো উচিত। এতে করে সব ধরনের ভুল বোঝাবুঝি ও ক্লান্তি দূরে থাকে। সম্পর্কগুলো মজবুত হয় (সাইকোলজি টুডে)।

৫. নতুন সম্পর্ক তৈরি করে

একলা থাকা বা একলা খানিকটা সময় কাটানো মানে কিন্তু এটা নয় যে সবার কাছ থেকে দূরে থাকবেন আপনি কিংবা ঘর থেকে বাইরেই বেরোবেননা। বরং হতে পারে এর উল্টোটাও। একটা ব্যাগে নিজের প্রয়োজনীয় সব জিনিপত্র নিয়ে দুটো দিন পরিচিতদের কাছ থেকে দূরে গিয়ে একাকীত্ব উপভোগ করতে পারেন আপনি। আর এক্ষেত্রে নতুন নতুন মানুষের সাথে পরিচয় ও নতুন সব সম্পর্ক তৈরির সুযোগটাও চলে আসে সহজে (হাফিংটন পোস্ট)।