মেইন ম্যেনু

এক কাপ চা নিমেষে দূর করে দেবে সকল ব্যথা!

ঘাড় ব্যথা, মাথা ব্যথা কিংবা হাত পায়ে ব্যথা হলে, এর হাত থেকে মুক্তির জন্য পেইনকিলারের শরণাপন্ন হয়ে থাকি। পেইনকিলার ব্যথা দূর করতে বেশ কার্যকর। কিন্তু অতিরিক্ত পেইনকিলার কিডনির ক্ষতি করে থাকে। এই কারণেই চিকিৎসকরা খুব বেশি পেইনকিলার খাওয়া থেকে বিরত থাকতে বলেন। আবার এই অসহ্য ব্যথা নিয়ে কাজ করাও যায় না। তাহলে উপায়? উপায় আছে, এই ব্যথা দূর করে দিবে জাদুকরী এক চা! এই পানীয়গুলো পানে আপনার ব্যথা নিমিষে কমে যাবে। হলুদের স্বাস্থ্যগুণ সবার জানা। হলুদের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি উপাদানও দেহের প্রদাহ জনিত ব্যথা দূর করতে বিশেষভাবে কার্যকরী।আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক এই জাদুকরী পানীয়গুলো তৈরির উপায়।

১।হলুদ এবং মধু চা
৪ কাপ পানি
১ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
লেবুর রস বা মধু (স্বাদ বৃদ্ধির জন্য)

চুলায় পানি গরম হয়ে আসলে এতে হলুদ গুঁড়ো দিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট সিদ্ধ করুন। আপনি যদি ফ্রেশ হলুদ কুচি ব্যবহার করেন, তবে ১০ মিনিট সিদ্ধ করুন।পানি সিদ্ধ হয়ে আসলে এতে লেবুর রস অথবা মধু মিশিয়ে পান করুন।

২।আদা হলুদ চা
১ কাপ পানি
১ চা চামচ হলুদ কুচি অথবা ১/৩ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
১ চা চামচ আদা কুচি অথবা ১/৩ আদা গুঁড়ো
মধু
লেবুর রস (ইচ্ছা)

একটি প্যানে পানি গরম করতে দিন। পানি সিদ্ধ হয়ে আসলে এতে আদা কুচি বা আদা গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো দিয়ে ৫ মিনিট সিদ্ধ করুন। এরপর চা ছেঁকে নিন। এতে মধু এবং লেবুর রস মিশিয়ে নিন।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া
সাধারণত হলুদের কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই। তবে কিছু কিছু ঔষধের সাথে এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। আপনি যদি কোন ঔষধ সেবন করে থাকেন, এই চা পানের পূর্বে আপনার চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত। গর্ভবতী এবং নতুন মায়েরা এই চা পান করা থেকে বিরত থাকুন। দিনে খুব বেশি পরিমানে এই চা পান করবেন না।