মেইন ম্যেনু

এক খুনির বিবরণ দিলেন সেই কালো মাইক্রোবাস চালক

পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যার সময়েই সেদিক দিয়ে যাওয়া কালো মাইক্রেবাসের ড্রাইভার খুনিদের অন্তত একজনের চেহারার বিস্তারিত বিবরণ দিয়েছে গোয়েন্দাদের কাছে। তবে এ ব্যাপারে আর বেশি কিছু প্রকাশ করতে চায়নি পুলিশ।

সেখানকার দুটি সিসি ক্যামেরার ফুটেজ বিশেষজ্ঞদের দিয়ে বিশ্লেষণের জন্যে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়েছে। চাঞ্চল্যকর মাহমুদা হত্যা মামলার তদন্ত চলছে ধীর গতিতে। মাহমুদা হত্যার সময়ের সিসিটিভি ফুটেজ বিশ্লেষন করে খুনিদের স্পষ্ট অবয়ব সনাক্ত করতে কাজ করছেন ঢাকার বিশেষজ্ঞরা।

চট্রগ্রাম মোট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার ইকবাল বাহার, চেহারাগুলো এত বেশি স্পষ্ট নয়। আমরা ফুটেজগুলোকে ঢাকায় নিয়ে এসেছি, আরো বেশি স্পষ্ট ছবি পাওয়া যায় কিনা সেজন্য। জামায়াত-শিবির থেকে শুরু করে, অন্য যে কেউই এই ঘটনা ঘটাতে পারে। তবে প্রথম সন্দেহে জঙ্গিদের রেখেই অন্যান্য আরো বিষয়গুলোকে তদন্ত করেই আমরা সন্ত্রাসী বা হত্যাকারীদের বের করতে সচেষ্ট আছি।

চট্টগ্রামের জিইসি মোড়ে ৫ জুন রোববার সকালে শিশু সন্তানের সামনে কুপিয়ে ও গুলি করে পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতুকে হত্যা করা হয়। পরদিন ভোরে নগরীর বাদুরতলা বড় গ্যারেজ এলাকা থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহার করা মোটরসাইকেল উদ্ধার করে পুলিশ। প্রত্যক্ষদর্শী ৪ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। আটক হয় কালো রঙের মাইক্রোবাসটি।