মেইন ম্যেনু

এক চোখে পাহারা, আরেক চোখে ঘুমায় যে প্রাণী

শত্রুর আক্রমণ থেকে নিজেকে রক্ষার জন্য সবসময় চোখ- কান খোলা রাখতে হয়। এক চোখ খোলা রেখে ঘুমানো মানে নিজেকে বিপদ থেকে রক্ষা। এক চোখ ঘুমাবে আর অন্য চোখ নিজেকে পাহারা দেবে কিন্তু বিষয়টি মোটেও অস্বাভাবিক নয় মানুষের বেলায়।

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার এক গবেষণায় বলা হয়েছে, কুমির সবসময় এক চোখ খোলা রেখে ঘুমায়। যখন সে ঘুমায় তখন তার এক চোখ খোলা থাকে। কুমিরের এ অভিনব ঘুমানো নিশ্চিত হতে একদল গবেষক এর ওপর একটি পরীক্ষা চালান। তারা একটি রুমের ভেতর রাখা অ্যাকুরিয়ামে ক্যামেরাযুক্ত করে দেন।

যখন তারা রুমের ভেতর ছিল তখন কুমিরটি অ্যাকুরিয়ামের ভেতর চোখ খোলা অবস্থায় ছিল। যখন তারা রুম থেকে বের হয়ে যায় তখনই ক্যামেরাবন্দী হয় কুমিরের অভিনব ঘুমের রহস্য। নদীতে কুমিরের ঘুরে বেড়ানো কিংবা ডাঙ্গায় বিশ্রামরত কুমিরকে দেখা যায় সচরাচরই।

সাধারণত ঘুমের সময় পানির উপরিভাগে অর্থাৎ তীরে এসে কখনো পুরো শরীরে কিংবা কখনো অর্ধেকটা পানিতে ডুবিয়ে থাকতে দেখা যায় কুমিরকে। অস্ট্রেলিয়ার গবেষকরা বলছেন, এক চোখ খোলা রেখেই ঘুমাতে পারে কুমির। এর মূল কারণ হলো একই সময়ে মস্তিষ্কের মাত্র অর্ধেকটা বন্ধ থাকে এ প্রাণীর।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, এক-চোখের ঘুম কিছুটা অবাক করার মতো হলেও বিরল কিছু নয়। বহু পাখি এবং কিছু ডলফিনসহ অনেক প্রাণীই আছে যারা মস্তিষ্কের অর্ধেক সচল থাকায় ঘুমানোর সময়ও এক চোখ খোলা রাখতে পারে। মূলত কুমিরসহ এসব প্রাণী শরীরের এক অংশকে বিশ্রামে রেখে অন্য অংশ সচল রাখতে পারে। কুমিরসহ এসব প্রাণী শরীরের এক অংশ বিশ্রামে রেখে, অন্য অংশ সচল রাখতে পারে।